Latest News

আজ বিকেল পাঁচটা থেকে বাংলার কোন কোন শহর ও গ্রামীণ এলাকায় কী কী বন্ধ থাকবে, দেখুন একনজরে

জনস্বার্থেই এই বিধিনিষেধ আরোপ করছে রাজ্য সরকার।

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রবিবার সকালে কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট সচিব রাজীব গৌবার নেতৃত্বে সব রাজ্যের মুখ্য সচিবদের বৈঠকেই দিক নির্দেশ স্থির হয়ে গিয়েছিল। বিকেলে সেই মোতাবেক নতুন নির্দেশিকা ঘোষণা করে দেয় নবান্ন। 

কী সেই ঘোষণা?

রাজ্যের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দফতরের জারি করা সেই ঘোষণায় বলা হয়েছে, ১৮৯৭ সালের মহামারী রোগ (নিয়ন্ত্রণ) আইনের ৭ নম্বর ধারা অনুযায়ী আজ, ২৩ মার্চ বিকেল ৫টা থেকে ২৭ মার্চ রাত ১২টা পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের গ্রাম ও শহর এলাকায় কিছু পরিষেবায় নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা হচ্ছে। জনস্বার্থেই এই বিধিনিষেধ আরোপ করছে রাজ্য সরকার।

কী কী পরিষেবা বন্ধ থাকবে?

১) গণ পরিবহণ ব্যবস্থা পুরোপুরি বন্ধ থাকবে। শুধু ট্রেন বাস নয়, অটোরিকশ, ট্যাক্সি কিছুই চলবে না। কেবল মাত্র হাসপাতালের গাড়ি ও অ্যাম্বুলেন্স, বিমানবন্দর, স্টেশন ও বাস স্ট্যান্ড থেকে আসা যাওয়ার জন্য গাড়ি এবং অত্যবশকীয় পণ্য পরিবহণের জন্য গাড়ি চলবে।

২) সব দোকান, বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান, অফিস, কারখানা, ওয়ার্কশপ বন্ধ থাকবে।

৩) বিদেশ থেকে ফেরা সমস্ত যাত্রীকে বাধ্যতামূলক ভাবে বাড়িতে কোয়ারেন্টাইন থাকতে হবে। কত দিন গৃহনজরে থাকতে হবে সে ব্যাপারে স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্তারা পরামর্শ দেবেন।

৪) সব মানুষকে বাড়িতে থাকারই পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। একমাত্র অপরিহার্য কোনও প্রয়োজন ছাড়া কেউ যেন বাড়ি থেকে না বেরোন।

৫) উপরি উল্লিখিত নিয়ন্ত্রণের বাইরে থাকবে সরকারি ও বেসরকারি কিছু জরুরি পরিষেবা।
সেগুলি হল—
ক) আইনশৃঙ্খলা রক্ষার ব্যবস্থা, আদালত এবং সংশোধনাগার পরিষেবা।
খ) স্বাস্থ্য পরিষেবা
গ) পুলিশ, সশস্ত্র বাহিনী ও আধা সামরিক বাহিনী
ঘ) দমকল ও বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর
ঙ) টেলিকম, ইন্টারনেট এবং তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর পরিষেবা
চ) ব্যাঙ্ক ও এটিএম
ছ) গণ বন্টন ব্যবস্থা, মুদি খানার দোকান, শাক সবজি, মাছ, মাংস, দুধের পরিবহণ ও বিক্রি
জ) মুদিখানার জিনিস ও খাবার বিক্রির হোম ডেলিভারি ও ইকমার্স পরিষেবা
ঝ) পেট্রোল পাম্প ও এলপিজি গ্যাস
ঞ) ওষুধের দোকান ও ওষুধ প্রস্তুত সংস্থার কাজ
ট) প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক এবং সোশাল মিডিয়া

৬) পাবলিক প্লেসে এক সঙ্গে সাত জন বা তার বেশি মানুষ জটলা করা যাবে না।

৭) কোনও ব্যক্তি এই সব নির্দেশ লঙ্ঘন করলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কোন জেলার কোন কোন জায়গা লক ডাউন, দেখে নিন এক নজরে

১. কোচবিহার- জেলা সদর শহর

২. আলিপুরদুয়ার- জেলা সদর শহর , জয়গাঁ

৩. জলপাইগুড়ি- জেলা সদর শহর

৪. কালিম্পং- জেলা সদর শহর

৫. দার্জিলিং- দার্জিলিং, কর্শিয়াঙ, শিলিগুড়ি

৬.উত্তর দিনাজপুর- পুরো জেলা

৭. দক্ষিণ দিনাজপুর- জেলা সদর শহর

৮. মালদা- পুরো জেলা

৯. মুর্শিদাবাদ- পুরো জেলা

১০. নদিয়া- পুরো জেলা

১১. বীরভূম- সমস্ত পুরসভা এলাকা

১২. পশ্চিম বর্ধমান- পুরো জেলা

১৩. পূর্ব বর্ধমান- জেলা সদর শহর, কালনা, কাটোয়া

১৪. পুরুলিয়া- জেলা সদর শহর

১৫. বাঁকুড়া- জেলা সদর শহর, বরজোড়া, বিষ্ণুপুর

১৬. পশ্চিম মেদিনীপুর- জেলা সদর শহর,খড়্গপুর শহর, ঘাটাল শহর

১৭. ঝাড়গ্রাম- জেলা সদর শহর

১৮. পূর্ব মেদিনীপুর- জেলা সদর শহর , হলদিয়া, দিঘা, কোলাঘাট, কাঁথি

১৯. হাওড়া- পুরো জেলা

২০. হুগলি- জেলা সদর শহর,চন্দননগর, উত্তরপাড়া, কোন্নগর, শ্রীরামপুর, আরামবাগ

২১. দক্ষিণ ২৪ পরগনা- ডায়মন্ড হারবার, ক্যানিং, সোনারপুর, বারুইপুর, ভাঙড়, বজবজ, মহেশতলা

২২. উত্তর ২৪ পরগনা- সল্টলেক, নিউ টাউন-সহ সমস্ত পুর এলাকা

২৩.কলকাতা- পুরো কর্পোরেশন এলাকা

You might also like