Latest News

এই বয়সে হাতি তাড়াব! বেজায় চটে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন বন আধিকারিক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আর হাতে গোনা একটা বছর। তারপরেই চাকরি থেকে অবসর নিতে হবে। শেষ সময়টা একটু আয়েস করেই থাকতে চেয়েছিলেন বন দফতরের আধিকারিক ( Forest officer Joined BJP ) । কিন্তু সেটা হল না। তাঁকে কিনা দেওয়া হল হাতি তাড়ানোর কাজ। এই বয়সে এসে গ্রামে গ্রামে ঘুরে হাতি খেদাতে কার ভাল লাগে! তাই বেজায় চটে সব ছেড়ে একেবারে গেরুয়া পতাকা হাতে তুলে নিলেন দলগাঁও বন্যপ্রাণী শাখার বিট অফিসার জগন্নাথ সাহা।

মঙ্গলবার বিকেলে অবাক করা ঘটনা ঘটেছে ডুয়ার্সে (Duars)। এমনিতেও গতকাল বিজেপির জলপাইগুড়ি জেলা কার্যালয়ে এসে গেরুয়া পতাকা তুলে নিয়েছিলেন তৃনমূল পরিচালিত বানারহাট ব্লকের শালবাড়ি ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান কালিপদ রায়। তাঁর সঙ্গেই যোগ দিয়েছিলেন এক পঞ্চায়েত সদস্য সহ প্রায় ১০০ জন তৃনমূল নেতা, কর্মী। আজ বিকেলে আবারও চমকপ্রদ ঘটনা ঘটল। দলগাঁও বন্যপ্রাণী শাখার বিট অফিসার নিজে থেকে এসে বিজেপিতে যোগ দিলেন।

ইন্দাসে ছাউনিতে আগুন লেগে মৃত্যু পরিযায়ী শ্রমিকের দুই শিশুকন্যার

এই বয়সে এসে এখন কি আর হাতি তাড়াতে ভাল লাগে? খুবই রেগে গেছেন জগন্নাথবাবু। দলগাঁও বন বিভাগে দায়িত্ব নিয়ে কাজ সামলেছেন তিনি। চাকরি জীবনের শেষে এসে তাঁকে কিনা দেওয়া হল হাতি খেদানোর কাজ। গোটা ব্যাপারটাই তাঁর মান-সম্মানে লেগেছে। জগন্নাথবাবুর বক্তব্য, আর একটা বছর পরেই অবসর। এখন বন বিভাগের অন্য শাখায় না দিয়ে, তাঁকে বন্যপ্রাণী শাখায় বদলি করে দেওয়া হয়েছে। গ্রামে গ্রামে ঘুরে কোথায় হাতি ঢুকেছে, কোথায় হাতি তাণ্ডব করছে, সেইসব দেখেশুনে তাঁকে হাতি তাড়াতে যেতে হবে। ষাট বছরে এসে এত লম্ফঝম্ফ কি আর সইবে? মনের দুঃখে প্রচণ্ড বিরক্তিতে তাই বড়সড় সিদ্ধান্তই নিয়ে ফেলেছেন জগন্নাথবাবু।

জগন্নাথবাবুর এই যোগদান নিয়ে বিজেপির জেলা সভাপতি বাপী গোস্বামী বলেছেন, “তৃণমূলে আর নও ভদ্রলোক থাকতে চাইছেন না। তাই সব দলে দলে বিজেপিতে যোগদান করছে। আর আজ একজন বন দফতরের আধিকারিক সরকারি সংগঠনের উপর বিরক্ত হয়ে প্রকাশ্যে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। “

এদিকে জগন্নাথবাবু যে সরকারি সংগঠনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন, তাতে রীতিমতো বিরক্ত দলীয় নেতৃত্ব। শাসক দল প্রভাবিত সরকারি কর্মচারী সংগঠনের জেলা সভাপতি সঞ্জয় সিংহ তো বলেই দিয়েছেন, জগন্নাথবাবু যা করেছেন তা নিয়ম-নীতি বিরুদ্ধ। ওঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্য়বস্থা নেওয়ার দাবি জানানো হবে।

You might also like