Latest News

পার্থর জামাইকে দু’বার ডেকেছিল ইডি! ১৫ কোটি নগদ ঢেলেছিলেন পিংলার স্কুলে: চার্জশিট

দ্য ওয়াল ব্যুরো: স্কুল সার্ভিস দুর্নীতি মামলায় সোমবার পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee) ও অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের (Arpita Mukherjee) বিরুদ্ধে চার্জশিট দিয়েছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। তার পরতে পরতে যেন বিস্ফোরক ঠাসা। সেখানেই উল্লেখ রয়েছে, আমেরিকা নিবাসী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামাই কল্যাণময় ভট্টাচার্যকে দু’বার ডেকে পাঠিয়েছিল ইডি।
পার্থকে (Partha Chatterjee) ইডি গ্রেফতার করেছিল ২৩ জুলাই সকালে। কেন্দ্রীয় এজেন্সির ১৭২ পাতার চার্জশিটে উল্লেখ রয়েছে, ঠিক এক মাসের মাথায় অর্থাৎ ২৩ অগস্ট কল্যাণময়কে সমন পাঠানো হয়। তাতে বলা হয়, তিনি যেন ১ সেপ্টেম্বর ইডি দফতরে হাজিরা দেন। ইডির চার্জশিট বলছে, সেই সমন পৌঁছয়নি কল্যাণময়ের কাছে।

কিন্তু সেখানে থেমে যায়নি ইডি। দেখা যাচ্ছে ২ সেপ্টেম্বর ফের তাঁকে সমন পাঠানো হয়। তাতে পার্থর জামাইকে ৮ সেপ্টেম্বর হাজিরা দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল। কিন্তু মার্কিন মুলুক থেকে এমুখো হননি কল্যাণ।

কেন তলব কল্যাণকে?
ইডি-র চার্জশিটে লেখা হয়েছে, পিংলায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের (Partha Chatterjee) প্রয়াত স্ত্রী বাবলি চট্টোপাধ্যায়ের নামে যে ইন্টারন্যাশনাল স্কুল রয়েছে সেখানে নগদ ১৫ কোটি টাকা বিনিয়োগ হয়েছিল। সেই স্কুলের অন্যতম ডিরেক্টর কল্যাণময়।

পিংলায় কল্যাণময়ের মামার বাড়ি। তাঁর দুই মামা এই স্কুলের যাবতীয় কাজকর্মের তদারকি করতেন। সেখানে মাঝেমাঝে যেতেন পার্থও। স্কুলের ভিতর আলাদা করে বিলাসবহুল কটেজ রয়েছে। সেখানে কয়েকবার রাতও কাটিয়েছিলেন পার্থ। তবে পিংলার স্কুলে কখনও অর্পিতাকে দেখা যায়নি বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছিল।
পার্থর জামাই কল্যাণময় বেশ কয়েকবছর হল আমেরিকায় থাকেন। জানা যায়, সেখানে টেক্সটাইলের ব্যবসা রয়েছে তাঁর। কয়েকমাস আগে মিনি কুপার গাড়িও কিনেছিলেন তিনি। এসএসসি দুর্নীতি মামলায় এক কল্যাণময়কে গ্রেফতার করেছে সিবিআই। কিন্তু জামাই কল্যাণময়কে ডেকে পাঠালেও তিনি আসেননি ইডি দফতরে।

You might also like