Latest News

‘যুব মানেই লাল চুল, কানে দুল, দুর্নীতি!’ যুব তৃণমূলকে প্রকাশ্যে ভর্ৎসনা উদয়ন গুহর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: যুব তৃণমূল মানেই লাল চুল আর কানে দুল, এই রকম যুবদের তৃণমূলে দলে থাকার কোনও দরকার নেই। পাশাপাশি, যুব তৃণমূল মানেই চাকরির নাম করে টাকা তোলা আর জমির দালালি করা। দিনহাটার প্রকাশ্য এক জনসভায় এভাবেই যুব তৃণমূলকে ভর্ৎসনা করলেন তৃণমূল বিধায়ক উদয়ন গুহ।

আজ, রবিবার দিনহাটার হেমন্ত বসু কর্নারে দলীয় কর্মসূচি ছিল তৃণমূলের। সেখান থেকেই যুবদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন উদয়ন বাবু। নিজের ঘনিষ্ট কাউন্সিলর জয়দীপ ঘোষকে তৃণমূলে যোগদান করানোর অনুষ্ঠানের সেই মঞ্চ থেকে যুবদের উদ্দেশ্যে তীব্র ভাষায় ভর্ৎসনা করেন উদয়ন বাবু।

দিনহাটা মহাবিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আলোক নিতাই দাস খুনের প্রধান অভিযুক্ত জয়দীপ ঘোষ। তাঁকে দলের মহাসচিব ইতিপূর্বেই দল থেকে বহিষ্কার করেছিলেন। দীর্ঘদিন গা-ঢাকা দিয়ে থাকার পরে আদালতের নির্দেশে জামিন পেয়ে বর্তমানে দিনহাটাতেই রয়েছেন উদয়ন ঘনিষ্ঠ এই কাউন্সিলর। আজ তাঁকে দলে ফের অন্তর্ভুক্ত করে তৃণমূল।

উদয়ন বাবু সেই অনুষ্ঠানে প্রকাশ্যে বলেন, যুব মানেই চাকরির নামে টাকা তোলা আর যুবনেতা মানে দিনহাটার বুকে জমির দালালি করা। উদয়ন বাবুর এহেন বক্তব্যে ব্যাপক শোরগোল পড়ে যায় রাজনৈতিক মহলে। দিনহাটায় উদয়ন বাবু যখন দলের যুব শাখা নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করছেন, তখন মঞ্চে ছিলেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি পার্থপ্রতিম রায়-সহ অন্য নেতারা।

দিনহাটায় যুবদের কাছে অনেকটাই কোণঠাসা উদয়ন গুহ। সম্প্রতি উদয়নের ঘনিষ্ঠ এই কাউন্সিলর জয়দীপ ঘোষ সংহতি ময়দানে এক যুব নেতার গাড়িতে ভাঙচুর চালান। দলে দলে যুবরা এসে ওই কাউন্সিলরের বাড়িতে হামলা চালিয়ে তাঁর বাড়ি, গাড়ি ও বাস ভেঙে দেয়।

এর পরে রবিবার বহিষ্কৃত কাউন্সিলরকে দলে ফিরিয়ে নেন উদয়ন বাবুরা। দলকে শক্তিশালী করতে যেখানে যুবদের ওপরেই ভরসা করছে দল, সেখানে উদয়ন বাবুর এ হেন বক্তব্য দলের অন্দরে গোষ্ঠী কোন্দল আরও বাড়বে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

You might also like