Latest News

২১ হাজার পদে দুর্নীতি, ৯ হাজার ওএমআর শিট বিকৃত করা হয়েছে, হাইকোর্টে সিবিআই

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির বহর কত বড় ছিল সোমবার কলকাতা হাইকোর্টে তা স্পষ্ট করে জানাল সিবিআই (CBI)। কেন্দ্রীয় তদন্ত এজেন্সির অধীনে হাইকোর্ট (Calcutta High Court) যে স্পেশাল ইনভেস্টিগেটিং টিম তথা সিট গঠন করে দিয়েছিল তারা এদিন রিপোর্ট পেশ করেছে। সেই রিপোর্টে বলা হয়েছে মোট ২১ হাজার পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে দুর্নীতি করেছিল স্কুল সার্ভিস কমিশন। সেই দুর্নীতি করতে গিয়ে ৯ হাজার ওএমআর (OMR Sheet) শিট বিকৃত করা হয়েছে।

নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে এর আগে প্রাথমিক চার্জশিট পেশ করেছিল সিবিআই। সেই চার্জশিটেই বলা হয়েছিল, অপটিকাল মার্ক রেকগনিশন তথা ওএমআর (OMR- Optical Mark Recognition) শিট বিকৃত করে অযোগ্যদের চাকরি দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনায় শান্তিপ্রসাদ সিনহা ও সুবীরেশ ভট্টাচার্য সরাসরি ভাবে জড়িত বলে জানানো হয়েছিল চার্জশিটে।

শুধু তাই নয়, নবম-দশমে নিয়োগ দুর্নীতি মামলার তদন্তে নেমে সিবিআই আরও জানিয়েছিল যে স্কুল সার্ভিস কমিশনের দফতর এবং উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদ থেকে হার্ড ডিস্ক উদ্ধার করা হয়েছে। বাংলার স্কুল সার্ভিস কমিশনের ওমএমআর শিট সংক্রান্ত হার্ড ডিস্ক কীভাবে গাজিয়াবাদে গেল সেটাই সবচেয়ে বড় বিস্ময়ের ব্যাপার ছিল। এর পরই বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এ ব্যাপারে আরও গভীর তদন্তের নির্দেশ দেন।

‘আমার মধ্যে লড়াইটা এখনও বেঁচে আছে’

কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে এজন্য সিবিআইয়ের অধীনে সিট গঠন করতে বলা হয়। অশ্বিনী সিংভির নেতৃত্বে সেই সিট সোমবার সেই রিপোর্ট পেশ করেছে বিচারপতি বিশ্বজিৎ বসুর এজলাসে। তাতে সিট এও জানিয়েছে, স্কুল সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে খুব কম করে ২১ হাজার পদে নিয়োগে দুর্নীতি হয়েছিল।

এর আগে গত সপ্তাহে হাইকোর্টের নির্দেশে স্কুল সার্ভিস কমিশন ১৮৩ জন অযোগ্য চাকরি প্রাপকের নামের তালিকা প্রকাশ করে। তার পর আরও ৪০ জন অযোগ্যের হদিশ পাওয়া যায়। সেক্ষেত্রেও ওমআর শিট বিকৃত করা হয়েছিল বলে অভিযোগ।

You might also like