Latest News

সাইকেল, বাইক সারাতে সারাতেই স্নাতক পাশ! ধন্যি মেয়ে বোলপুরের নুরেসা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বাড়ির সামনে সাইকেল সারানোর ভাঙাচোরা গ্যারাজ (Garage)। মোটরসাইকেল মেরামতির কাজও হয়। প্রতিদিন সকাল হলেই গ্যারেজ খোলেন নুরেসা। তারপর বাবার সঙ্গেই চলে একের পর এক সাইকেল সারানোর (Cycle Mechanic) পালা। যেটুকু আয়, তার থেকেই কোনওমতে চলে সংসার। চলছে পড়াশোনাও। সাইকেল সারাতে সরাতেই স্নাতক (Graduate) হয়েছেন বোলপুরের (Bolpur) নুরেসা।

বয়স যখন তিন বছর, তখন বাবার পাশে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থেকে সাইকেল সারাই করা দেখত নুরেসা। তারপর কখন থেকে যেন আপন হতে শুরু করে সাইকেলের যন্ত্রপাতিগুলি। নাড়াচাড়া করতে করতে নুরেসা নিজেই এখন দক্ষ মেকানিক। খারাপ হয়ে যাওয়া সাইকেল সারিয়ে দিতে পারেন নিমেষে। অভাবের সংসার। সাইকেল সারাইয়ের সামান্য আয়ের ভরসাতেই চলে সংসার। তাও পড়াশোনা ছেড়ে দেননি। এই বছরেই দর্শনে অনার্স নিয়ে পাশ করেছেন বিএ। স্বপ্ন দেখেন এমএ পড়ার। যদিও জানা নেই, টানাটানির সংসারে তা আদৌ সম্ভব হবে কিনা।

বোলপুর থেকে নানুর যাওয়ার রাস্তায় লায়েকবাজারে সাইকেল সারাইয়ের দোকান শেখ বাবুর। চার মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে অভাবের সংসার। জানালেন, ছোট থেকেই অভাব অনটন। তাই তাঁর সঙ্গে সাইকেল সারাইয়ের কাজে হাত পাকিয়েছেন নুরেসা। এখন মোটরসাইকেল ঠিক করতেও পারদর্শী হয়ে উঠেছে মেয়ে। পড়াশোনার ফাঁকে যতটুকু সময় বাঁচে, দোকানে থেকে সাইকেল মেরামতের কাজ করে নুরেসা। এভাবেই দুজনে মিলে সচল রাখেন সংসারের চাকা।

নুরেসার ইচ্ছে আগামীতে সেনাবাহিনীতে যোগ দেওয়ার। তার জন্যে প্রস্তুতি শুরু করেছেন লড়াকু এই মেয়ে।

চাল, ডিম, আলু ফেলে ডালের বস্তা নিয়ে পালাল চোর! নদিয়ার অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রে হুলস্থূল

You might also like