Latest News

কমিশনের বিধি উড়িয়ে দিব্যি চলছে প্রচার! চন্দননগরে বিজেপি বিধায়ক, প্রার্থী গ্রেফতার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দলবল নিয়ে পুরভোটের প্রচারে নেমেছিলেন বিজেপি প্রার্থী। সঙ্গে ছিলেন বিধায়কও। বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট চাইছিলেন জনগণের কাছে। কিন্তু করোনা আবহে নির্বাচনের বিধি বেঁধে দিয়েছে কমিশন। তাতে জটলা করে বাড়ি বাড়ি ঘুরে প্রচারে এক্কেবারে ‘না’ করে দেওয়া হয়েছে। সেই বিধিভঙ্গের অভিযোগে রবিবার বিজেপি বিধায়ক, প্রার্থীসহ মোট ৭ জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে হুগলির চন্দননগরে। সেখানকার ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে রবিবার সকাল থেকে প্রচার শুরু করে বিজেপি।  প্রচারে ছিলেন বিজেপির প্রার্থী সন্ধ্যা দাস, পুরশুড়ার বিধায়ক বিমান ঘোষ, হুগলি বিজেপির জেলা সভাপতি তুষার মজুমদার এবং যুব সভাপতি সুরেশ সাউ। অভিযোগ, তাঁদের প্রচারে অনেক কর্মী ভিড় করেছিলেন।

নির্বাচন কমিশন থেকে বলা হয়েছে কোভিডের কথা মাথায় রেখে এবার পুরভোটে ভার্চুয়াল মাধ্যমে প্রচার চালাতে হবে। সর্বাধিক ৫ জন নিয়ে বাড়ি বাড়ি ঘুরে প্রচার চালাতে পারবেন প্রার্থীরা। কিন্তু চন্দননগরে এদিন কমিশনের সেই নির্দেশের তোয়াক্কা করা হয়নি বলে অভিযোগ।

রবিবার সকালে বিজেপির এমন প্রচারের খবর পেয়ে কমিশনের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে যান। তারা বাধা দিলে বাতানুবাদ শুরু হয়। পরিস্থিতি ক্রমে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। শেষমেশ পুলিশ গিয়ে পৌঁছয় ঘটনাস্থলে। বিধায়ক, প্রার্থীসহ ৭ জনকে গ্রেফতার করে তারা। নির্বাচনী বিধি ভঙ্গের অভিযোগ তোলা হয়েছে তাঁদের বিরুদ্ধে।

এদিকে বিজেপির পাল্টা অভিযোগ, অনেক রাজনৈতিক দলই ১০-১২ জন কর্মী নিয়ে প্রচার চালাচ্ছে। কমিশন বা পুলিশ কেউ তাদের কিছু বলছে না। বিজেপির প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণের অভিযোগ তোলা হয়েছে। তৃণমূলের তরফ থেকে গোটা ঘটনার নিন্দা করা হয়েছে।

You might also like