Latest News

ভবানীপুরে ভোট পড়েছে নামমাত্র, বাকি দুই কেন্দ্র স্বাভাবিক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সকাল ৭টা থেকে ভবানীপুর (Bhawanipur Bypoll) ও মুর্শিদাবাদের দুই কেন্দ্রে ভোট শুরু হয়েছে। এখনও অবধি ভোট শান্তিপূর্ণই বলা যায়। বড়সড় অশান্তির কোনও খবর মেলেনি। এর পরেও ভবানীপুর বিধানসভা কেন্দ্রে ভোট পড়েছে নামমাত্র। সকাল ৯টা অবধি ভবানীপুর ও মুর্শিদাবাদের দুই কেন্দ্র সামশেরগঞ্জ ও জঙ্গিপুরে ভোটদানের যা হার, তাতে সবথেকে পিছিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কেন্দ্রই।

ভবানীপুরে সকাল ৯টা অবধি ভোট পড়েছে ৭.৫৭ শতাংশ, জঙ্গিপুরে ১৭.৫১ শতাংশ ও সামশেরগঞ্জে ভোটদানের হার ১৬.৩২ শতাংশ। অর্থাৎ বাকি দুই কেন্দ্রের তুলনায় ভবানীপুরে ভোটদানের হার ৫০ শতাংশেরও কম। কেন এত কম ভোট পড়ল সে নিয়ে ইতিমধ্যেই আলোচনা শুরু হয়েছে।

ভবানীপুর হাইভোল্টেজ কেন্দ্র। শুরু থেকেই গোটা বাংলার নজর রয়েছে এই কেন্দ্রের ওপরে। এখানকার তৃণমূল প্রার্থী স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজ্য শুধু নয়, জাতীয় রাজনীতিতেও এই উপনির্বাচন যথেষ্টই তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। কাজেই এই কেন্দ্রে আজ সারাদিনে নানা অশান্তি হতে পারে সে আশঙ্কাও করতে পারেন অনেকে। ভোটদানে এরও প্রভাব পড়েছে কিনা তাও এখনও স্পষ্ট নয়।

তাছাড়া বৃষ্টির কারণে ভোট প্রভাবিত হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হয়েছিল। কিন্তু সে সমস্যা আজ আর নেই। সকাল থেকেই আকাশ পরিষ্কার। জলও নেমে গেছে অনেকটাই। গতকাল থেকেই ভবানীপুরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে জমা জল বের করার জন্য কাজে লাগানো হয়েছে গলিপিট ক্লিয়ার ট্যাঙ্ককে। বডিগার্ড লাইন লাগোয়া এলাকা গতকালও জলমগ্ন ছিল। অনেক ভোটারই বলেছিলেন এমন বৃষ্টি চললে ও জল জমে থাকলে ভোট দিতে যাবেন না। কিন্তু আজ সকালে ভিন্ন ছবি দেখা যায়। জল পেরিয়েই বুথে আসেন ভোটাররা। নিরাপদে ভোট দিয়ে ফিরেও যান। এর পরেও কেন এত কম ভোট পড়ল সেটাই আশ্চর্যের।

সকাল থেকে ভবানীপুরে ভোট শান্তিপূর্ণই। বুথে বুথে ঘুরে তদারকি করছেন বিজেপি প্রার্থী প্রিয়ঙ্কা টিবরেওয়াল। ১২৬ নম্বর বুথে ইভিএম কারচুপির অভিযোগ তুলেছিলেন তিনি, যদিও নির্বাচন কমিশন তা অস্বীকার করে। তাছাড়া ভবানীপুর কেন্দ্রে ১৪৪ ধারা মানা হচ্ছে না বলে পুলিশের সঙ্গে তর্কাতর্কিতেও জড়ান তিনি। পরিস্থিতি বুঝে বিজেপি প্রার্থীর নিরাপত্তা আরও বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। বেলায় চেতলার ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে পৌঁছন সিপিএম প্রার্থী শ্রীজীব বিশ্বাস। তিনি জানান, চেতলাতে ভোট শান্তিপূর্ণ। বিকাল ৪টের পর মিত্র ইনস্টিটিউশনে ভোট দিতে আসবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দুপুর ২টোর পর ভোট দিতে আসতে পারেন।

ভবানীপুর কেন্দ্রে ভোট কেন কম পড়ছে সে নিয়ে দক্ষিণ কলকাতার তৃণমূল সভাপতি তথা বিধায়ক দেবাশীষ কুমারকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “ভবানীপুরে অতীতের রেকর্ড এমনই। সকালের দিকে ভোট বরাবরই কম পড়ে। অন্যান্য এলাকার তুলনায় কমই হয়। তার উপর এটা উপনির্বাচন।“ দেবাশীষবাবু আরও বলেন, এবার যেহেতু ভোটপ্রার্থী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তাই উপনির্বাচনের আলাদা গুরুত্ব আছে। বেলা গড়ালে ভোট আরও বাড়বে, আশাবাদী তিনি।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকাসুখপাঠ

You might also like