Latest News

গঙ্গাসাগর মেলার বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর সুব্রত স্মৃতিচারণা, বোন তনিমা বললেন, ‘ওঁর পক্ষে এত তাড়াতাড়ি ভুলে যাওয়া কষ্টকর’

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রতিবার সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের (subrata mukherjee) কাঁধেই থাকত গঙ্গাসাগর (gangasager mela) মেলার প্রধান দায়িত্ব। তাঁর প্রয়াণে শূন্যস্থান তৈরি হয়েছে। কিন্তু সোমবার এবারের মেলার প্রস্তুতি নিয়ে নবান্নের প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে উঠে এলেন তিনি। সুব্রতকে স্মরণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (mamata)। বললেন, ‘প্রতিবার সুব্রতদা থাকতেন। এ বার আর থাকছেন না। আমি খুব মিস করছি সুব্রতদাকে। অনেক কাজ করতেন।’

বিষয়টিতে প্রয়াত মন্ত্রীর বোন (sister) তনিমা মুখোপাধ্যায় বললেন, ‘বারবারই মুখ্যমন্ত্রীর মুখে দাদার কথা উঠে আসছে। এটা স্বাভাবিক। দু’জনের মধ্যে ভাল বোঝাপড়া ছিল। দাদাকে এত সহজে ভুলে যাওয়াটা ওঁর পক্ষে কষ্টকর।’

তনিমা আরও বলেন, ‘দীর্ঘদিন গঙ্গাসাগর মেলার দায়িত্ব সামলেছেন দাদা। মমতাদির মিস করাটা খুবই স্বাভাবিক। যখন মমতাও জানতেন না যে তিনি মুখ্যমন্ত্রী হবেন, তখন থেকেই ওঁদের সখ্য। মুখ্যমন্ত্রী দাদাকে অনেক ভরসা করতেন।’

এবছর পুরভোটে টিকিট না পেয়ে নির্দল হিসেবে দাঁড়িয়েছিলেন তনিমা। দল তাঁকে বহিস্কার করেছে। ভোটেও জিততে পারেননি। তাও তৃণমূল নেত্রীর প্রতি শ্রদ্ধা অটুট তাঁর। বললেন, ‘বিভিন্ন রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে দাদার সঙ্গে হয়ত পরামর্শ করতেন। কিন্তু ওঁর নিজের ক্যারিশমাই আলাদা।’

উল্লেখ্য, গত দশ বছর ধরে গঙ্গাসাগর মেলার পরিচালনার দায়িত্বে থাকতে দেখা গিয়েছে সদ্য প্রয়াত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে। এই এক দশকে প্রশাসনিক কর্তা থেকে স্থানীয় আয়োজক, এমনকী স্থানীয় মানুষেরাও জানতেন, মেলার ঠিক কয়েকদিন আগে গঙ্গাসাগরে চলে আসতেন মন্ত্রী সুব্রত। প্রতিবার এসেই মেলার চারদিন সুব্রত উঠতেন জনস্বাস্থ্য ও কারিগরি দফতরের আবাসনে।

চলতি বছর কালীপুজোর রাতে এসএসকেএম হাসপাতালে ম্যাসিভ হার্ট অ্যাটাকে প্রয়াত হন পঞ্চায়েতমন্ত্রী। প্রয়াণের খবর প্রকাশের পর শোকে মুহ্যমান মুখ্যমন্ত্রী কার্যত কোনও প্রতিক্রিয়াই দিতে পারেননি। আসেননি শেষকৃত্য বা শ্রাদ্ধে। কিন্তু তিনি আজ ফের স্মরণ করলেন সুব্রতকে।

এবছর দায়িত্বে রয়েছেন, পুলক রায়, অরুপ বিশ্বাস, মণীশ গুপ্ত, শামিমা বেগম, মন্টুরাম পাখিরা, বঙ্কিমচন্দ্র হাজরা, ফিরহাদ হাকিম, যোগরঞ্জন হালদার, শুভাশিস চক্রবর্তী। সবাই ১২ তারিখ থেকে দায়িত্বে থাকবেন। ফিরহাদ হাকিমকে কলকাতার মেলার জন্য বিশেষ দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

 

You might also like