Latest News

খড়দহে তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ, ৫ লাখ দিতে না পারায় রেস্তোরাঁ ভাঙচুর

দ্য ওয়াল ব্যুরো, উত্তর ২৪ পরগণা: ফের তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ। চাহিদামতো ৫ লক্ষ টাকা না (Extortion) দেওয়ায় রেস্টুরেন্টের একাংশ ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে খড়দহ টাউন তৃণমূলের সভাপতি সুকন্ঠ বণিকের বিরুদ্ধে।

খড়দহ স্টেশন রোডে ছেলেকে নিয়ে নতুন রেস্টুরেন্ট করেন লক্ষ্মী সিং নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা। তাঁর ছেলে দ্বীপজয় সিং মূলত ব্যবসা দেখতেন। লক্ষ্মী সিংয়ের দাবি, দোকানে বৃষ্টির জল ঢোকা আটকাতে তিনি সামনে প্লাস্টিক শেডের আচ্ছাদন দেন। তার কিছুটা রাস্তায় চলে আসে। আশেপাশের সব দোকানের‌ই এক‌ইরকম আচ্ছাদন আছে বলেও তিনি জানান। ওই মহিলার অভিযোগ, এরপরই তাঁর দোকানের শেড বেআইনি দাবি করে টাউন তৃণমূলের সভাপতি সুকন্ঠ বণিক ৫ লক্ষ টাকা চান। টাকা দিলে তিনি শেড রেখে দিতে পারবেন বলেও জানানো হয়। কিন্তু এতো টাকা দেওয়া সম্ভব নয় জানানোর পর‌ই সমস্যা শুরু হয়।

লক্ষ্মী সিংয়ের দাবি, ওই তৃণমূল নেতার লোকজন এসে তাঁর দোকানের কর্মচারীদের মারধর, গালিগালাজ করেছে। পরে শেডটি ভেঙেও দেওয়া হয়। এই ঘটনায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে তোলাবাজির (Extortion) অভিযোগ করেছেন বিজেপি নেতা জয় সাহা।

পাকিস্তানকে এফ-১৬ বিক্রির সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ ভারত, আমেরিকার মাটিতে দাঁড়িয়েই কড়া সমালোচনা জয়শঙ্করের

যদিও সুকন্ঠ বণিক তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেন। তাঁর দাবি, বেআইনি কাজ করলে মেনে নেওয়া হবে না। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “অনৈতিক কাজকর্মের প্রতিবাদ করার ফলেই অপবাদ দেওয়া হচ্ছে। ৫ লক্ষ কেন, ৫০ কোটি টাকা দিলেও খড়দহের বুকে সুকণ্ঠ বণিককে কেনা যাবে না!” উল্লেখ্য, খড়দহ পুরসভার পক্ষ থেকে ওই রেস্টুরেন্টের সামনের শেড ভেঙে দেওয়া হয়েছে বলে টাউন তৃণমূলের সভাপতি দাবি করেন।

You might also like