Latest News

১৩ বছর পর খুনিকে সামনে পেয়ে গণপিটুনি! পরে অভিযুক্তের মৃত্যু, তদন্তে মুর্শিদাবাদ পুলিশ

দ্য ওয়াল ব্যুরো, মুর্শিদাবাদ: ২০০৭ সাল থেকে তার পাত্তা ছিল না গ্রামে। খুন করার প্রায় ১৩ বছর কেটে গিয়েছিল। কিন্তু অভিযুক্তকে পুলিশ ধরতে পারেনি। পরে জানা গিয়েছিল, মুর্শিদাবাদে খুন করে বাংলাদেশে গা ঢাকা দিয়েছে অভিযুক্ত। কিন্তু গ্রামে হঠাৎই সে ফিরে এসে ঘুরে বেড়াচ্ছিল। তাই মাথা ঠিক রাখতে পারেনি গ্রামবাসীরা। ১৩ বছর পর অভিযুক্তকে হাতের কাছে পেয়ে আইন নিজেদের হাতে তুলে নিতে বাধ্য হলেন তাঁরা। অভিযুক্তকে সামনে পেয়ে পিটিয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠল গ্রামবাসীদের বিরুদ্ধে।

পুলিশ সূত্রে খবর, ঘটনাটি ঘটেছে ভগবানগোলা থানার বাহাদুর গ্রাম এলাকায়। গণপিটুনিতে মৃত ব্যক্তির নাম কুরবান সেখ। সূত্রের খবর, ২০০৭ সালে কুরবান শেখ বাহাদুরপুরের বাসিন্দা মজরুল ইসলামকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। তারপর মজরুলের মৃতদেহ উদ্ধার হয়।

মৃত মজরুল ইসলামের পরিবারের অভিযোগ, তাঁকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুন করে ছিল কুরবান। ঘটনার পর থেকেই নিরুদ্দেশ ছিল সে। স্থানীয়রা শনিবার সন্ধ্যের পর থেকে এলাকায় ঘুরতে দেখে কুরবানকে। এরপর রবিবার সকালে কুরবানকে গ্রামবাসীরা ধরে ব্যাপক মারধর করে বলে অভিযোগ।

ঘটনাস্থলে পৌঁছায় ভগবানগোলা থানার পুলিশ ও সার্কেল ইন্সপেক্টর শ্যাম সাহা। পুলিশ কুরবানকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য ভগবানগোলা কানাপুকুর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। মৃত কুরবান শেখের পরিবারের অভিযোগ, তাকে কয়েকজন ডেকে নিয়ে গিয়ে মেরেছে। ঘটনায়  লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। প্রাথমিক তদন্ত শুরু করেছে ভগবানগোলা থানার পুলিশ।

You might also like