Latest News

এসএসসিতে ওয়েটিং লিস্টে নাম, পাঁচ লাখ টাকা দিয়েও চাকরি না পেয়ে আত্মঘাতী যুবক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এসএসসি চাকরিতে ওয়েটিং লিস্টে নাম ছিল। প্রায় পাঁচ-ছয় বছর ধরে চেষ্টা করেও চাকরি মেলেনি। এরপরে চাকরির জন্য পাঁচ লাখ টাকাও দিয়েছিল যুবক। তাতেও লাভ না হওয়ায় অবসাদ বাড়ছিল। এদিনে ঋণের বোঝাও চেপে বসছিল ক্রমশ। শেষে আত্মঘাতী হয় যুবক।

টেট উত্তীর্ণদের চাকরি নিয়ে ধুন্ধুমার চলছে রাজ্যে। টাকা দিয়ে চাকরি পাওয়া নিয়ে মামলা-মোকদ্দমাও বিস্তর হচ্ছে। এর মধ্য়েই এমন মর্মান্তিক ঘটনা সামনে এল। লাখ লাখ টাকা দিয়ে চাকরি না পেয়ে আত্মহত্যা করল পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুরের বুরালি গ্রামের বাসিন্দা তপল দোলই (২৮)। পুলিশ জানিয়েছে, বিষ খেয়ে আত্মঘাতী হয়েছে তপন। রবিবার মৃতদেহের ময়নাতদন্ত করা হবে।

তপনের দিদি বিজলী জানিয়েছেন, ইংরেজিতে এমএ করা ছাড়াও বিএড করেছে সে। এসএসসি পরীক্ষা ভাল দিলেও ওয়েটিং লিস্টে নাম ছিল। এরপরেই টাকা দেয় সে। ২০১৭-১৮ সালে প্রায় পাঁচ লাখ টাকা দিয়েছিল বলে জানিয়েছে পরিবার। কিন্তু কাকে টাকা দিয়েছিল তপন তা বলতে পারেনি মৃতের পরিবারের লোকজনেরা।

মৃতের দাদা সুকুমারের বক্তব্য, ঋণ নিয়ে পাঁচ লাখ টাকা দিয়েছিল তপন। কিন্তু তারপরেও চাকরি মেলেনি। এদিকে ঋণের বোঝা বাড়ছিল। সংসার চালাতে চাষবাস করত, টিউশন পড়াত তপন। তার অবসাদ ক্রমেই বাড়ছিল।

বৃহস্পতিবার রাতের খাওয়ার পরেই বিষ খায় সে, এমনটাই দাবি করেছেন মৃতের দিদি। তপন বিষ খেয়েছে জানতে পেরেই তড়িঘড়ি তাকে মেদিনীপুরের একটি নার্সিংহোমে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয় তপনকে। শনিবার বিকেলে সেখানেই মৃত্যু হয় তার।

ঘটনায় এসএফআই-এর জেলা সম্পাদক রণীত বেরা বলেছেন, “ঘটনার খবর শুনেছি। আজ মৃত্যু হয়েছে। প্রথম থেকেই দাবি করে এসেছি, তৃণমূলের নেতারা মাছের বাজারের মতো চাকরি বিক্রি করে দুর্নীতি করছে। ইংরেজিতে পাস করে নিরুপায় হয়ে হয়ত চাকরির জন্য টাকা দিয়েছিল। বেকারত্বের হাহাকার শুরু হয়েছে। টাকা ফেরত নিতে গিয়ে আক্রমণের সম্মুখীন হতে হয়েছে। যুব সমাজ একত্রিত হন। যারা টাকার বিনিময়ে চাকরি দিতে চাইছে তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত হোক। এসএফআই সর্বতভাবে ওই পরিবারের পাশে রয়েছে।”

You might also like