Latest News

ক্রেতা সুরক্ষায় মামলা করে ক্ষতিপূরণ পেলেন চাকরির পরীক্ষায় বসতে না পারা যুবক

পোস্ট অফিসের গাফিলতিতে চাকরির পরীক্ষার দু’দিন পরে এসে পৌঁছেছিল অ্যাডমিট কার্ড

দ্য ওয়াল ব্যুরো, উত্তর দিনাজপুর: পোস্ট অফিসের গাফিলতিতে পরীক্ষার দু’দিন পরে এসে পৌঁছেছিল অ্যাডমিট কার্ড। তাই আর চাকরির পরীক্ষায় বসা হয়নি। ক্রেতা সুরক্ষা আদালতে মামলা করে ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ পেলেন সেই চাকরিপ্রার্থী।

২০১৮ সালে বালুরঘাট মহিলা মহাবিদ্যালয়ে কম্পিউটার সায়েন্সের ল্যাব অ্যাটেনডেন্ট পদে চাকরির আবেদন করেন  কুশমন্ডি ব্লকের মানিকোর এলাকার বাসিন্দা জারজিস জামান (৩৫)। পরীক্ষা ছিল ওই বছরের ২৭ সেপ্টেম্বর। বালুরঘাট মহিলা মহাবিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অ্যাডমিট কার্ড পোস্ট করে ২০১৮ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর। কিন্তু সেই অ্যাডমিট কার্ড তাঁর কুশমন্ডির বাড়িতে পৌঁছোয় ২০১৮ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর। পরীক্ষার দু’দিন পরে অ্যাডমিট কার্ড আসায় সেই পরীক্ষায় বসতে পারেননি এই চাকরিপ্রার্থী। এরপরেই বালুরঘাট ক্রেতা সুরক্ষা দফতরের দ্বারস্থ হন জারজিস। ২০১৯ সালের ১৮ জানুয়ারি ক্ষতিপূরণ চেয়ে ক্রেতা সুরক্ষা আদালতে মামলা করেন তিনি। অভিযুক্ত করা হয় বালুরঘাট হেড পোস্ট অফিসকে।

গত ৪ ঠা ডিসেম্বর বালুরঘাট ক্রেতা সুরক্ষা আদালত ৪৫ দিনের মধ্যে অভিযোগকারীকে ৫০ হাজার টাকা দেওয়ার জন্য বালুরঘাট হেড পোস্ট অফিস কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেয়। দু’দিন আগেই সেই চেক জারদিসের হাতে তুলে দেয় পোস্ট অফিস কর্তৃপক্ষ। চেক ক্যাশ হতেই শুক্রবার ক্রেতা সুরক্ষা আদালতে এসে আইনজীবী পিন্টু সরকারের সঙ্গে দেখা করে গেলেন জারদিস।

জারদিস বলেন, “আগেও পোস্ট অফিসের গড়িমসিতে দেরিতে অ্যাডমিট কার্ড পেয়ে চাকরির পরীক্ষায় বসতে পারেননি অনেক প্রার্থী। আমিও পরীক্ষায় বসতে না পেরে এই চাকরির সুযোগটা হারিয়েছি। ক্ষতিপূরণের টাকাটা বড় কথা নয়। কিন্তু আদালতে পোস্ট অফিসের কর্মীদের গাফিলতি প্রমাণ হয়েছে। এতেই আমি খুশি। ভবিষ্যতে আমার মতো যেন আর কাউকে ভুগতে না হয়।”

You might also like