Latest News

ষষ্ঠীতেও আন্দোলনে চাকরিপ্রার্থীরা, জরুরি বৈঠকে কমিশনও

দ্য ওয়াল ব্যুরো:‌ পুজোর মধ্যেও কলকাতায় আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন শিক্ষকের চাকরিপ্রার্থীরা। থেমে নেই স্কুল সার্ভিস কমিশনও (SSC)। তাঁরাও জরুরি ভিত্তিতে বৈঠক করছেন। আজ, শনিবার মহাষষ্ঠীর দুপুরে ফের বৈঠক করলেন কমিশনের আধিকারিকরা। কী করে নিয়োগ প্রক্রিয়া আরও দ্রুত করা যায়, তা নিয়েই মূলত আলোচন হয়েছে বলে খবর। সাধারণত পুজোর সময় কমিশনের এত তৎপরতা থাকে না। কিন্তু এখন পরিস্থিতি ভিন্ন।

সূত্রের খবর, আপাতত প্রার্থীদের ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া কী ভাবে হবে, তার প্রস্তুতি সেরে নিতে চাইছেন কমিশনের আধিকারিকরা (SSC)। স্কুল শিক্ষা দফতরের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে কমিশনের। মেধা তালিকা প্রস্তুত করে রাখতে চাইছে কমিশন। চলতি বছরের মধ্যেই, প্রক্রিয়া শেষ করতে চায় কমিশন।

পুজোর (Durga Puja 2022) সময়েও বিক্ষোভ চালিয়ে যেতে পারবেন চাকরিপ্রার্থীরা। অদালত এই নির্দেশ দিয়েছে। তাই চাকরিপ্রার্থীরাও কলকাতার রাজপথ ছেড়ে যাননি। রোজই আসছেন মহাত্মা গান্ধী, মাতঙ্গিনী হাজরার মূর্তির পাদদেশে। শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু আন্দোলনকারীদের অনুরোধ করেছিলেন, পুজোর দিনগুলো পরিবারের সঙ্গে কাটান। বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষও আন্দোলনকারীদের উদ্দেশে বলেছিলেন, ‌পুজোর কটা দিন আন্দোলন না করে, বাড়ি গিয়ে পরিবারের সঙ্গে থাকা উচিত। পুজোর পরে ফের আন্দোলনে ফিরুন সবাই। কিন্তু চাকরিপ্রার্থীরা তা করেন নি।

চাকরিপ্রার্থীদের মতে, অনেক দিনের লড়াইয়ের পর তাঁরা আশার আলো দেখতে পাচ্ছেন। তাই তাঁরা উৎকন্ঠায় আছেন। এখন আন্দোলনে কোনও ঢিলে দিতে চান না তাঁরা। তাঁরা কারও ওপর ভরসা করতে পারছেন না। তাঁদের বক্তব্য, আন্দোলনই তাঁদের একমাত্র পথ। তাই পুজোর জন্যও এখান থেকে সরে যেতে চাইছেন না তাঁরা।

অন্যদিকে, চলতি মাসেই ইন্টারভিউ নেওয়া শুরু হতে পারে। নিয়োগপ্রক্রিয়া নিয়ে যত দ্রুত সম্ভব সমাধান বের করতে চায় স্কুল সার্ভিস কমিশন। দু দিন আগেই, এসএসসির গ্রুপ ডি কর্মী নিয়োগে অনিয়মে বিস্মিত কলকাতা হাইকোর্ট। বিচারপতি বিশ্বজিৎ বসুর মন্তব্য নিয়ে শোরগোল পড়ে গেছে রাজ্যে। তাঁর মন্তব্য, ‘‌ভয়ঙ্কর পরিসংখ্যান। যা দেখা যাচ্ছে তা গোটা হিমশৈলের চূড়ামাত্র। টাকার বিনিময়ে শিক্ষক নিয়োগের যে অভিযোগ রয়েছে তাতে ভবিষ্যতে ছাত্ররা শিক্ষকদের দিকে আঙুল তুলবে। জিজ্ঞাসা করবে এরা কেমন শিক্ষক। জানি না এর শেষ কোথায়। আগে আবর্জনা সাফ করুন। গোটা প্যানেল খারিজ করা উচিত। সরকারি নিয়োগ প্রক্রিয়ায় যাতে অবৈধভাবে নিযুক্ত ব্যক্তিরা অংশ নিতে না পারে তার ব্যবস্থা করা উচিত।’‌

কলকাতায় ২ ঘণ্টার মধ্যে বৃষ্টির আশঙ্কা, জানাল আবহাওয়া দফতর

You might also like