Latest News

SSC : পুলিশের সামনেই গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা এসএসসি চাকরি প্রার্থীর, ক্ষোভ রাজ্যপালের

দ্য ওয়াল ব্যুরো : কলকাতায় আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন এক এসএসসি (SSC) চাকরি প্রার্থী। মাতঙ্গিনী হাজরার মূর্তির সামনে পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তির মাঝেই আচমকা আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ওই মহিলা প্রার্থী। মহিলা পুলিশ ও অন্যরা গিয়ে ওই মহিলাকে (SSC) রক্ষা করেন। তাঁর চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

শারীরশিক্ষা ও কর্মশিক্ষা বিভাগের (SSC) চাকরিপ্রার্থীদের  নিয়োগ করা হয়নি। যেকারণে আন্দোলন অব্যহত। বৃহস্পতিবার বেলা বাড়তেই উত্তেজনা ছড়ায়। আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, আদালতের নির্দেশ মেনেই আন্দোলন করছেন তাঁরা। কিন্তু পুলিশ বাধা দিচ্ছে।

জানা গিয়েছে, বিজেপি কাউন্সিলর সজল ঘোষের নেতৃত্বে এসএসসি শারীরশিক্ষা চাকরি প্রার্থীদের একটি দলের দেখা করার কথা ছিল রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের সঙ্গে। অভিযোগ, ডেপুটেশন দেওয়ার পথে তাদের পথ আটকায় পুলিশ। এদিকে মেয়ো রোডে বিগত কয়েক দিন ধরেই দফায় দফায় অবস্থান চালাচ্ছেন চাকরিপ্রার্থীরা। সজল ঘোষের নেতৃত্বে দলটি সেখানে পৌঁছতেই পুলিশের সঙ্গে তাদের বচসা শুরু হয়ে যায় বলে খবর।

আরও পড়ুন : Stock : শেয়ার বাজারে ধস, বিনিয়োগকারীরা হারালেন সাড়ে ৬ লক্ষ কোটি টাকারও বেশি

মহিলা প্রার্থীদের জন্য অস্থায়ী শৌচাগার তৈরি করতে গেলে বাধা দেয় পুলিশ। তখনই পুলিশের সঙ্গে শুরু হয়ে যায় ধস্তাধস্তি। ঘটনাস্থলে ছিলেন ডিসি সাউথ আকাশ মাঘারিয়া। তাঁর সঙ্গেও বচসায় জড়ান চাকরি প্রার্থীরা। ওই সময়েই এক মহিলা চাকরি প্রার্থী মাতঙ্গিনী হাজরার মূর্তির সামনে থাকা একটি গাছে গলায় ফাঁস দিতে যান। এরপর সজল ঘোষকে গ্রেফতার করা হয়। চাকরি প্রার্থীদের অনেককে আটক করা হয়। এরপর সেখানকার ছাউনি তুলে দেয় পুলিশ।

বিজেপি কাউন্সিলর সজল ঘোষের অভিযোগ, রাজ্যপালের কাছে ডেপুটেশন জমা দেওয়ার কথা ছিল। এসএসসি চাকরি প্রার্থীদের সঙ্গে যাওয়ার কথা ছিল। রাজ্যপাল সময়ও দিয়েছিলেন। ছাত্রীদের জন্য কিছু পড়ুয়া টয়লেটের ব্যবস্থা করছিল। পুলিশ সেটুকুও হতে দেয়নি। শেষ পর্যন্ত ডিসি সাউথের নেতৃত্বে এক বিশাল বাহিনী এসে সবাইকে আটক করে।  ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে টুইট করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এই ঘটনায় দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

You might also like