Latest News

‘নিয়ম সবার জন্য এক মামা’, বিমানকাণ্ডে নাম না করে ঋতুপর্ণাকে ঠুকলেন শ্রীলেখা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: না, নাম তিনি নেননি। নাম সচরাচর নেনও না শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)। নাম না নিয়েই যা বলার বলে দেন। মঙ্গলবারও তাই হল। ভোরবেলা ইন্ডিগোর বিমানে চড়তে পারেননি ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত (Rituparna Sengupta)। হাজার অনুনয়-বিনয় করেও লাভ হয়নি। আর ভরসন্ধ্যায় টলিউডের (Tollywood) আরেক তারকা শ্রীলেখা যে পোস্ট ফেসবুকে করলেন, তাতে ভোরের সেই ঘটনার গন্ধই পাওয়া গেল।

আরও পড়ুন: সঞ্চালককে থাপ্পড় থেকে ভাইকে চুমু! বিদেশি অ্যাওয়ার্ড মঞ্চে এমন কত যে বিভ্রাট…

কী লিখেছেন শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)?

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অভিনেত্রীর ফেসবুক পোস্টে দেখা গেল, লেখা হয়েছে একটা মাত্র লাইন। ‘ট্রেন হোক বা প্লেন, নিয়ম তো সবার জন্য এক মামা’। ব্যঙ্গ স্পষ্ট। সরাসরি কারও নাম না নিলেও নেটিজেনদের বুঝে নিতে অসুবিধা হয়নি শ্রীলেখার এই পোস্টের উদ্দেশ্য কে। আজ সকালেই বিমানে উঠতে না পেরে ফেসবুকে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। তাঁর অভিযোগ, তিনি সময়ের চেয়ে একটু দেরিতে বিমানবন্দরে পৌঁছেছিলেন বলে তাঁকে বিমানে উঠতে দেওয়া হয়নি। নানারকমভাবে অনুরোধ-উপরোধ সত্ত্বেও কেউ তাঁর কথা রাখেননি। এমনকি বিমানবন্দরে কান্নাকাটি করেও কোনও সুবিধা করতে পারেননি টলি অভিনেত্রী।

হামেশাই যেই বিমানে যাতায়াত করেন, তাতে মাত্র কয়েক মিনিটের দেরির জন্য উঠতে দেওয়া হল না কেন, কেন ৫০ পা দূরে দাঁড়িয়ে থাকা বিমানে টিকিট থাকা সত্ত্বেও উঠতে পারলেন না ঋতুপর্ণা সেই প্রশ্ন তুলে লম্বা একটি ফেসবুক পোস্ট তিনি করেছেন।

ঋতুপর্ণার সঙ্গে এদিন বিমানবন্দরে যা ঘটেছে তা আর পাঁচজন সাধারণ মানুষের সঙ্গেও ঘটে হামেশাই। সময়ের এক চুল এদিক ওদিক হলেই বিমানযাত্রা বাতিল হয়ে যায়। কিছুতেই আর সেই বিমানে চড়ার উপায় থাকে না। শ্রীলেখাও সেটাই বলতে চেয়েছেন। নিয়ম সবার জন্যেই সমান। তারকা অভিনেত্রী বলে ঋতুপর্ণা কোনও বাড়তি সুবিধা প্রত্যাশা করতে পারেন না।

You might also like