Latest News

শ্যামসুন্দর জুয়েলার্সের নয়া উদ্যোগ, কলকাতার পুজো মণ্ডপে হাজির হচ্ছে খুদে দুর্গারা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কোভিডের সংক্রমণ কমতেই এবছর প্যান্ডেলে দর্শনার্থীদের ভিড় বেশ চোখে পড়ার মতো। তবে সপ্তমীতে ত্রিধারা, দেশপ্রিয় পার্কের মতো ঐতিহ্যপূর্ণ পুজো (Puja) উৎসবে হাজির হবে দুর্গা অ্যান্ড ফ্রেন্ডসের দুর্গারা। যাদের বয়স ৬-১২ বছর।

শ্যামসুন্দর কোম্পানি জুয়েলার্স সংস্থা ১৫ জন শিশুকন্যাদের দায়িত্ব নিয়েছে। শুধু পড়াশোনা নয়, পড়াশোনার পাশাপাশি পাঠক্রম বহির্ভূত নানা ধরনের কার্যক্রমের মাধ্যমেও শিশু কন্যাদের সমাজের মূলস্রোতে ফিরিয়ে আনতে এই সংস্থা উদ্যোগী। সংস্থার কর্ণধার রূপক সাহা মনে করেন যে এরা প্রত্যেকেই এক একজন দুর্গা। এদের মধ্যে কেউ পথশিশু, কেউ আবার পিতৃ-মাতৃহীন।

এই শিশুরা মুকুন্দপুরে ‘স্নেহা’ নামে একটি ভাড়া বাড়িতে থাকে। তাদের দেখাশোনার দায়িত্ব শ্যামসুন্দর জুয়েলারি সংস্থার। গত আট বছর ধরেই এই জুয়েলারি সংস্থা ১৫ জন শিশু কন্যাদের নিয়ে গড়ে তুলেছে দুর্গা অ্যান্ড ফ্রেন্ডস। স্থানীয় স্কুলে এরা পড়াশোনা করে। প্রত্যেকেই প্রথম থেকে ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী। এইসব শিশুকন্যার যাবতীয় দায়-দায়িত্ব নিয়ে নীরবে কাজ করে চলেছেন রূপক সাহারা। উদ্দেশ্য একটাই এই শিশুরা যেন আগামী দিনে পায়ের জমি শক্ত করতে পারে।

মা দুর্গার কাছে কামনা একটাই, যেন এই শিশুরা আগামী দিনে নিজের পরিচয়ে মাথা উঁচু করে বাঁচে। সমস্ত প্রতিকূলতাকে দূরে ঠেলে তারা যেন বাস্তবের মা দুর্গা রূপে প্রতিষ্ঠিত হয়। মা দুর্গার আশীর্বাদে সেই শক্তি যেন তাদের মধ্যে চারিত হয়।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like