Latest News

ইস্টবেঙ্গলে ফুটবল সচিব পদ নিয়ে বিতর্কে জল ঢাললেন সৈকত

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ইস্টবেঙ্গল (East Bengal) এবার ‘অনলাইন ক্লাব ম্যানেজমেন্ট’ শুরু করল। ফুটবল সচিব (Football Secretary) পদে সৈকত গঙ্গোপাধ্যায়কে দায়িত্ব চালিয়ে যাওয়ার কথা বলা হয়েছে। তিনি ব্যবসার কাজে বিদেশে থাকলেও অনলাইনের ভিত্তিতে ক্লাবের বিষয়টি দেখভাল করবেন। তিনি বিতর্কে জল ঢাললেন বৃহস্পতিবার রাতে। তিনি বিতর্ক চান না এই বিষয়ে। ভার্চুয়ালি তিনি বিদেশে থাকলেও এই বিষয়ে কাজ তদারকি করতে পারবেন।

নয়া দিগন্ত এজবাস্টন টেস্টে, স্কোয়ার লেগ ফিল্ডার ও ব্যাটসম্যানদের হেলমেটে ক্যামেরা!

বৃহস্পতিবার রাতে ক্লাবের তরফে যে প্রেস বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে, তাতে বলা হয়েছে, ‘‘সৈকত ব্যবসার কাজে বিদেশে থাকবেন, সেই কারণে তাঁর পরিবর্তে ওই সময়ে কাজটি সামলাবেন রূপক সাহা।’’ যিনি শ্যাম জুয়েলার্সের কর্ণধারও বটে। তিনি ক্লাবে বর্তমানে বেশি সক্রিয়। তিনি কর্মসমিতির অন্যতম সদস্য, পাশাপাশি ক্লাবের সহ সচিব পদেও রয়েছেন।

Image - ইস্টবেঙ্গলে ফুটবল সচিব পদ নিয়ে বিতর্কে জল ঢাললেন সৈকত
ইস্টবেঙ্গলের পাঠানো প্রেস বিবৃতি

এদিন বিকেলে ক্লাবে কর্মসমিতির বৈঠক বসেছিল। তার আগে তাঁবুর শাটার নামিয়ে দেওয়া হয়। মোতায়েন ছিল পুলিশ। কিন্তু সভা শেষে পর্বতের মূষিক প্রসব হয়েছে। ভাবা গিয়েছিল, শুক্রবার রথযাত্রার দিনে ইমামি ও ক্লাবের মধ্যে চূড়ান্ত চুক্তি স্বাক্ষর হবে। কিন্তু সেই নিয়ে কোনও কথা শোনাতে পারেননি কর্তারা। বরং দিনের শেষে সচিব কল্যাণ মজুমদার লিখিত বিবৃতিতে জানান, আমাদের সঙ্গে ইমামির আলোচনা ফলপ্রুসুর দিকে এগচ্ছে।

বৃহস্পতিবার ক্লাবে আসা বহু সমর্থক রাত পর্যন্ত তাঁবুতে ছিলেন। তাঁরাও বিফল মনোরথ হয়ে ফিরেছেন। ক্লাবের একটি সূত্রে জানা গিয়েছে, সামনের সপ্তাহেই হবে চুক্তি স্বাক্ষর।

এদিন ক্লাব তাঁবুতে সাংবাদিক সম্মেলন করেন ফুটবল সচিব পদে থাকা সৈকত বাবু। তিনি বলেছেন, ‘‘আমাকে ক্লাব বলেছে বিদেশে গিয়েও কাজ করতে। সেই মতো আমি অনলাইনের মাধ্যমে যোগাযোগ রেখে চলব। কারণ ক্লাব আমাকে এই কাজের জন্য জায়গা দিয়েছে, এটি আমার কাছে বিশেষ সম্মানের। অবশ্য আমার অবর্তমানে কাজটি করবেন রূপক সাহা।

তিনি আরও বলেছেন, আমাকে কেন্দ্র করে কিছু সংবাদমাধ্যমে লেখা হয়েছিল, আমার সঙ্গে ক্লাবের মতভেদ হয়েছিল, সেটি যে ঠিক নয়, তা আজ পরিষ্কার। এরপর এই বিতর্ক খোঁজার মানে হয় না।

You might also like