Latest News

সৌরভই টিকিট দিলেন শচীন-ফ্যান সুধীরকে, রোহিতদের জন্য ফাঁকা ইডেনে বাজাবেন শঙ্খ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আমদাবাদ টু কলকাতা।

শচীন খেলা থেকে অবসর নিতেও মাঠ ছাড়তে পারেননি সুধীর গৌতম। এখনও টিম ইন্ডিয়া যেখানে খেলতে যায়, সঙ্গে সঙ্গে যান বিহারের সুধীর। সোজা আমদাবাদ থেকে ইডেনেও চলে এসেছেন সুধীর। কিন্তু এলেই তো হবে না, খেলা দেখবেন কী করে, এই নিয়ে চিন্তা ছিল তাঁর।

কলকাতা এসেই সোজা চলে গিয়েছেন বেহালা চৌরাস্তায় সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বাড়িতে। বুধবার সকালে দাদার থেকে ইডেনে যাওয়ার টিকিট সংগ্রহ করেছেন। সারা ইডেনে মাত্র দেড় হাজার দর্শক থাকবে, তাও সবটাই কমপ্লিমেন্টারি।

প্রথমে সুধীরকে ইডেনে প্রবেশ করতে দেয়নি নিরাপত্তারক্ষীরা। কারণ করোনার কারণে স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী ইডেনে দর্শক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এই অবস্থায় সৌরভও তাঁকে টিকিট দিতে ভাবছিলেন। কিন্তু সিএবি কর্তাদের সঙ্গে কথা বলে সৌরভ সুধীরকে ক্লাব হাউস মিডল টায়ারের একটি টিকিট দিয়েছেন।

সেই টিকিট নিয়েই ইডেনে এসেছেন সুধীর। রোহিতদের খেলায় তিনি সারাক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকে জাতীয় পতাকা নাড়াবেন, আর বাজাবেন শঙ্খ। সিএবি-র এক কর্তা জানালেন, ‘‘সুধীরকে আমরাই টিকিট দিতে পারতাম। কিন্তু পুলিশ আমাদের নিষেধ করেছিল, কারণ সুধীর তো দলের অ্যাম্বাসাডর নন, তাই ওকে আমরা সেটি জানিয়েছিলাম। কিন্তু পরে তো শুনছি ও টিকিট পেয়ে গিয়েছে।’’

বুধবার ইডেনে দুটি দলই সাড়ে পাঁচটার মধ্যেই ভারত এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটাররা পৌঁছে গিয়েছেন। তার আগেই চলে যান সুধীরও। টিম বাস আসতেই সুধীরও জাতীয় পতাকা নাড়তে থাকেন। যদিও ইচ্ছে ছিল, মাঠে প্রবেশের সময় সৌরভের সঙ্গে দেখা করে কৃতজ্ঞতা জানানোর। কিন্তু তখন বোর্ড প্রেসিডেন্ট আসেননি। তাই রাতেও অপেক্ষা করবেন সৌরভের জন্য। বাকি দুটি ম্যাচেও মাঠে থাকবেন সুধীর।

এদিকে, এদিন সিদ্ধান্ত হয়েছে, ইডেনে শেষ টি ২০ ম্যাচে দর্শক সংখ্যা বাড়বে। ২৫ শতাংশ দর্শক প্রবেশ করতে পারবে। মাঠের আপার টায়ারে দর্শক বসতে পারবেন। সিএবি-র চিঠির ভিত্তিতেই বোর্ডও কিছুটা নরম হয়ে এই ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিয়েছে।

You might also like