Latest News

পুরী যাওয়ার পথে সর্বস্ব খোয়ালেন বাঙালি দম্পতি, দুরন্ত এক্সপ্রেসে ছিনতাই

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পুরী (Puri) যাওয়ার পথে সর্বস্ব খোয়ালেন বারাসতের দম্পতি। ব্যবসায়ী অভিজিৎ আচার্য স্ত্রীকে নিয়ে বুধবার রাতের শিয়ালদহ-পুরী দুরন্ত এক্সপ্রেসে (Duronto Express) ওঠেন। অভিযোগ, খড়্গপুর থেকে ভুবনেশ্বর পর্যন্ত ধিকিয়ে ধিকিয়ে চলছিল ট্রেন। তাঁরাও ঘুমেছিলেন। তারমধ্যেই দু’জন উঠে ব্যাগ টেনে নিয়ে পালায় (Robbery)। চলন্ত ট্রেন থেকেই লাফিয়ে নেমে পড়ে দুই ছিনতাইবাজ।

অভিজিৎ আচার্যর বক্তব্য, প্যান্ট্রি স্টাফেদের পোশাক পরে উঠেছিল দু’জন। তারাই তাঁর স্ত্রীর ব্যাগ টেনে নিয়ে পালায়। বারাসতের এই ব্যবসায়ী সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, শুধু এ-১ কামরা নয়। বি-১, বি-২, বি-৩ এবং বি-৪ কামরাতেও অনেক যাত্রীর জিনিসপত্র খোয়া গিয়েছে। তাঁদের মধ্যে বেশিরভাগই পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা।

ডেঙ্গিতে ফের মৃত্যু কলকাতায়! শহরে আক্রান্তের সংখ্যা ৫০০ ছাড়িয়েছে

বৃহস্পতিবার সকালে দুরন্ত এক্সপ্রেস পুরী স্টেশনে ঢোকার পর যাত্রীরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। তাঁদের বক্তব্য, চিৎকার করা সত্ত্বেও কোনও নিরাপত্তারক্ষীকে পাওয়া যায়নি। পুরী আরপিএফে অভিযোগ দায়ের করেছেন তাঁরা। রেল পুলিশের ভুবনেশ্বের ডিভিশন গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে।

পুজোর সময়ে পুরীতে থিকথিক করে ভিড়। তাদের সিংহভাগই বাংলার মানুষ। এই ঘটনায় বৃহস্পতিবার বা শুক্রবার যাঁরা রওনা দেবেন তাঁদের মধ্যেও আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। সেইসঙ্গে রেলে যাত্রী নিরাপত্তা নিয়ে ফের একবার প্রশ্ন উঠে গিয়েছে দুরন্ত এক্সপ্রেসে লুঠের ঘটনায়। কেন নিরাপতারক্ষীরা ছিলেন না, কীভাবে ট্রেনের দরজার লক বাইরে থেকে খুলে দুষ্কৃতীরা উঠলসেই প্রশ্ন উঠছে। তবে যাঁদের টাকাপয়সা-সহ অন্যান্য জিনিস খোয়া গেছে তাঁরা মহা বিপাকে পড়েছেন।

You might also like