Latest News

Ritabrata Banerjee: তৃণমূলের ট্রেড ইউনিয়নে যেন সিপিএম মডেল, সম্মেলনের পর সমাবেশ, নেপথ্যে কি ঋতব্রত

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তৃণমূলের (TMC) শ্রমিক সংগঠন আইএনটিটিইউসির দুদিনের কর্মসূচি ছিল হলদিয়ায়। শুক্রবার সারাদিন সংগঠন, সমস্যা, সমাধানের রাস্তা ইত্যাদি প্রভৃতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। শনিবার রানিচক ময়দানে হয়েছে প্রকাশ্য সমাবেশ। যেখানে বক্তৃতা করেছেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)।

তৃণমূলের অভিধানে সম্মেলন নতুন নয়। মাঝে মাঝেই শোনা যায়। কিন্তু সেই সম্মেলনে কী হয়? নেতারা (Ritabrata Banerjee) বক্তৃতা করেন। কর্মীরা শোনেন। তারপর বাড়ি চলে যান।

আবার সাংগঠনিক ভাবে সিপিএমে সম্মেলন একটা বড় ব্যাপার। বলা ভাল যে কোনও কমিউনিস্ট পার্টি বা বাম দলেই সেটা গুরুত্বপূর্ণ। সেখানে আলোচনা হয়, সমালোচনা হয়, নতুন কমিটি নিয়ে অনেক সময়ে ভোটাভুটিও হয় । সিপিএমে আরও এওকটা রেওয়াজ চালু রয়েছে। তা হল পার্টি বা গণসংগঠনের সম্মেলনের শেষে বা শুরুতে প্রকাশ্য সমাবেশ। সেখানে বড় নেতারা বক্তৃতা করেন। গণজমায়েত হয়। আর সম্মেলনে থাকেন বাছা বাছা প্রতিনিধিরা।

হলদিয়ায় দুদিন ধরে তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠন যা করল তা দেখে অনেকেই মনে করছেন, ব্যাপারটা একদম সিপিএমের ছাঁচে ঢালা। আরও মনে হওয়ার কারণ ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় (Ritabrata Banerjee)। কারণ, শুক্রবার কোনও বড় নেতা সেখানে ভাষণ দেননি। বন্দরের শ্রমিক নেতারাই আলোচনা করেছেন সংগঠনের চলার পথ কী হবে তা নিয়ে। কী প্রতিকূলতা রয়েছে, তা কাটিয়ে এগনোর উপায় কী—সবই উঠে এসেছে তাঁদের আলোচনায়। যা তৃণমূলে দেখা যায় না।

ঋতব্রত (Ritabrata Banerjee) সিপিএমের ছাত্র সংগঠন এসএফআই-এর সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের পছন্দের ছেলে বলেই সিপিএমে পরিচিত ছিলেন ঋতব্রত। রেজ্জাক মোল্লাদের তীব্র বিরোধিতা সত্ত্বেও সিপিএম ঋতব্রতকে রাজ্যসভায় পাঠিয়েছিল। ছিলেন দলের রাজ্য কমিটিরও সদস্য।

সেই ঋতব্রত সিপিএম থেকে বহিষ্কৃত হওয়ার পর বেশ কিছুদিন দলহীন থেকে তৃণমূলে যোগ দেন। এখন তিনি আইএনটিটিইউসির রাজ্য সভাপতি। সিপিএমে থাকার সময়ে বহু সম্মেলন করেছিলেন ঋতব্রত। হতে পারে পুরনো ছাঁচে নতুন সংগঠনকে ফেলতে চাইলেন তিনি।

যে ভাবে হলদিয়ায় কর্মসূচি হয়েছে তার প্রশংসা শোনা গিয়েছে অভিষেকের গলাতেও। তিনি এদিন বলেন, “কালকে আপনারা যা আলোচনা করেছেন তার সবটাই আমি জানি। কী ভাবে জানি তার ব্যাখ্যায় যাচ্ছি না।” একথা বলেই অভিষেক গতকাল কী আলোচনা হয়েছে তার নির্যাস তুলে ধরেন সমাবেশে। বোঝাতে চান, সম্মেলনে শুধু আলোচনাই হয়নি। তার ঠিকঠাক রিপোর্টিংও হয়েছে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে। অভিষেক এও বলেছেন, তিনি চান, হলদিয়ায় বছর বছর এরকম সম্মেলন হোক।

‘অকৃতজ্ঞ! সিবিআই থেকে বাঁচাতে দিল্লির পা চাটছে’, শুভেন্দুকে তোপ অভিষেকের

You might also like