Latest News

ওড়না, ব্যান্ডেজ খুলতে বাধ্য করা হল পরীক্ষার্থীদের, চাঞ্চল্য রাজস্থানে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কেরলের নিট পরীক্ষার্থীদের ব্রা খুলতে বাধ্য করার ঘটনায় এখনও তোলপাড় দেশ। তার মধ্যেই রাজস্থানের (Rajasthan) শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায় (REET) টুকলি আটকাতে পরীক্ষার্থীদের ওড়না (Dupatta) খুলতে বাধ্য করার অভিযোগ সামনে এল। শুধু ওড়না খোলাই নয়, কেটে দেওয়া হয়েছে সালোয়ারের বোতাম, শাড়ির পিন, এমনকী ব্যান্ডেজ 9Bandages) থাকলে তাও খুলতে বাধ্য করা হয়েছে, এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ সামনে এসেছে।

শুনিবার রাজস্থান এলিজিবিলিটি এক্সামিনেশন ফর টিচার (রিট) এর প্রথম পর্বের পরীক্ষার জন্য এই বছর দুঙ্গারপুর জেলায় ৩২ টি পরীক্ষাকেন্দ্র রাখা হয়েছে। প্রত্যেক কেন্দ্রেই পুলিশি প্রহরার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢোকার সময় ছিল সকাল ৮.৩০, কিন্তু তার আগেই পড়ুয়াদের চেকিংয়ের ব্যবস্থা ছিল। সেখানে ছেলে ও মেয়েদের আলাদা লাইন করে দাঁড় করানো হয়।

এর মধ্যে কয়েকটি পরীক্ষাকেন্দ্রে মহিলা পরীক্ষার্থীদের ওড়না খুলে রাখতে বলা হয়। এছাড়া মঙ্গলসূত্র, চুড়ি এবং চুলের ক্লিপও খুলতে বলা হয়। জুতো এবং চপ্পলও খুলে রাখতে বলা হয়। এছাড়াও, অনেকের নাকি সালোয়ারের বোতাম কাঁচি দিয়ে কেটে দেওয়া হয়। কারোর শরীরে কোনও আঘাত থাকলে এবং তাতে ব্যান্ডেজ বাঁধা থাকলে সেটাও খুলে ফেলতে বলা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।

শিক্ষকদের নির্দেশেই ব্রা খুলতে হয়েছিল পরীক্ষার্থীদের? নিট-কাণ্ডে গ্রেফতার আরও ২

কয়েকদিন আগেই সর্বভারতীয় নিট পরীক্ষার জন্য কেরলের কোল্লামের একটি পরীক্ষাকেন্দ্রে মহিলা পরীক্ষার্থীদের ব্রা খুলে পরীক্ষা দিতে বাধ্য করার অভিযোগ ওঠে। তা নিয়ে উত্তাল হয়ে ওঠে সারা দেশ। নিজেদের ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেন একাধিক ছাত্রী। এই বিষয়ে থানায় অভিজ্ঞ দায়ের করেন এক পরীক্ষার্থীর বাবা। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৭জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

You might also like