Latest News

ধর্ষণ হয়নি, মানসিক সমস্যা রয়েছে নাবালিকার! মোরাদাবাদ কাণ্ডে চাঞ্চল্যকর দাবি পুলিশের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গত বুধবারই উত্তরপ্রদেশের (Uttarpradesh) মোরাদাবাদে (Moradabad) গণধর্ষিতা (gang raped) নাবালিকার (minor) বিবস্ত্র (naked) রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তা দিয়ে হেঁটে আসার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছিল নেট দুনিয়ায়। যা দেখে উত্তাল হয়ে উঠেছিল যোগীরাজ্য সহ গোটা দেশ। তার ঠিক একদিনের মাথায় পুলিশ জানাল, আদৌ কোনও গণধর্ষণের ঘটনাই ঘটেনি (rape not confirmed)! বরং পুরোটাই নাবালিকার মানসিক সমস্যার কারণে ঘটেছে, দাবি পুলিশের।

পুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে নাবালিকার কাকা থানায় এসে গণধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। সেই মোতাবেক তদন্ত শুরু করে এক অভিযুক্তকে গ্রেফতারও করেছিল পুলিশ। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চলছিল। এর মধ্যেই ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জবানবন্দি দেওয়ার সময় নাবালিকার পরিবার জানায়, আদৌ কোনো রকম যৌন হেনস্থা বা ধর্ষণের ঘটনা ঘটেনি।

মোরাদাবাদ রেঞ্জের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল সলভ মাথুর জানিয়েছেন, ‘পনেরো দিন আগে ঘটনাটি ঘটেছিল, এবং ঘটনার এক অভিযুক্ত বর্তমানে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে রয়েছে। মেডিক্যাল পরীক্ষাতে ধর্ষণের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। ঘটনাটি নিয়ে এখনও তদন্ত চলছে।’

পুলিশ আরও জানিয়েছে, নাবালিকার পরিবারের দাবি, ছোট থেকেই মানসিক অসুস্থতা রয়েছে ওই কিশোরীর। ধর্ষণের ঘটনা পুরোটাই তার কল্পনাপ্রসূত বলে দাবি করেছেন নাবালিকার বাড়ির লোকজন, এমনটাই জানিয়েছে পুলিশ।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার মোরাদাবাদে ১৫ বছরের এক কিশোরীকে বিবস্ত্র অবস্থায় রাস্তা দিয়ে হেঁটে যেতে দেখা যায়। জানা যায়, পাশের গ্রামে মেলা দেখে ফেরার সময় ৫ যুবক মিলে গণধর্ষণ করেছে ওই কিশোরীকে। ধর্ষণের পর রক্তাক্ত ও নগ্ন অবস্থায় ২ কিলোমিটার হেঁটে বাড়ি ফিরতে দেখা যায় কিশোরীকে। পথচারীরা কেউ তাকে সাহায্য তো করেইনি, উল্টে পুরো ঘটনা ক্যামেরাবন্দি করতে শুরু করে তারা। সেই ভিডিওই পরে ছড়িয়ে পরে ইন্টারনেটে। ঘটনার নিন্দায় উত্তাল হয়ে ওঠে দেশ। দিল্লির মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন স্বাতী মালিয়াল সেই ভিডিও টুইটারে শেয়ার করে লেখেন, এই মুহুর্তেই যদি কড়া পদক্ষেপ না নেয়া হয়, তাহলে পরিস্থিতি হাতের বাইরে বেরিয়ে যাবে এরপর।

তারপরেই পুলিশ জানাল, আদৌ ধর্ষণই ঘটেনি।

গণধর্ষণের পর বিবস্ত্র অবস্থায় হেঁটে বাড়ি ফিরল নাবালিকা! দাঁড়িয়ে ভিডিও করল জনতা

You might also like