Latest News

‘নিজেদের যাঁরা বাঁচাতে পারে না, তাঁরা কেমন চিকিৎসক?’, ফের বিতর্কিত মন্তব্য রামদেবের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ‘হাজারের বেশি চিকিৎসক ভ্যাকসিনের দু’টো ডোজ নেওয়ার পরেও মারা গেছেন। কেমন চিকিৎসক তাঁরা, যাঁরা নিজেদেরই বাঁচাতে পারেন না?’ অ্যালোপ্যাথি-বিতর্কের রেশ কাটতে না কাটতে ফের একবার সমালোচনার মুখে যোগগুরু বাবা রামদেব।

করোনাকালে ভ্যাকসিন, অ্যালোপ্যাথিক চিকিৎসার মতো নানান ইস্যুতে মুখ খুলে বিতর্ক উস্কেছেন তিনি। কিছুদিন আগে অ্যালোপ্যাথিকে ‘দেউলিয়া হয়ে যাওয়া বিজ্ঞান’ বলেছিলেন রামদেব। যার জেরে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন মন্তব্য প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে তাঁকে চিঠি পাঠান। চাপে পড়ে ক্ষমাপ্রার্থনাও করেন যোগগুরু।

সেই বিতর্ক থিতনোর আগে ফের শিরোনামে তিনি। এবার নিশানায় খোদ চিকিৎসকেরা। সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে রীতিমতো ঠাট্টার সুরে তাঁদের সমালোচনা করেছেন রামদেব। ক্লিপিংসটি কবেকার, সেটা জানা না গেলেও সেখানে তাঁকে অনুগামীদের উদ্দেশে যোগব্যামের উপকারিতার কথা বলতে শোনা যায়। যোগাভ্যাসের ফলে ফুসফুস কীভাবে শক্তিশালী হয়, সেটা বোঝাচ্ছিলেন তিনি।

এতদূর ঠিক ছিল। ঠিক এরপরেই সুর কাটে। হঠাৎ চিকিৎসকদের একহাত নিয়ে তিনি বলে বসেন, ‘১০ হাজার চিকিৎসক ডবল ভ্যাকসিন নিয়েও প্রাণ হারিয়েছেন।’ ভাইরাল হওয়া আরেকটি ভিডিওতে এই পরিসংখ্যানও বদলে যায়। ১০ হাজারের বদলে এবার ১ হাজার চিকিৎসক। যাঁদের ঠাট্টা করে রামদেবের মন্তব্য, ‘কেমন ডাক্তার তাঁরা যে, নিজেদেরও বাঁচাতে পারলেন না?’

এখানেই থেমে থাকেননি যোগগুরু। পরে যোগ করেন, ‘চিকিৎসক যদি হতেই হয়, তাহলে রামদেবের মতো হও। যাঁর কাছে কোনও ডিগ্রি নেই। তবু সকলের চিকিৎসা করেন। ডিগ্রি ছাড়াই দৈবশক্তি আর মর্যাদার বলে আমি চিকিৎসক হয়েছি।’

উল্লেখ্য, রামদেবের এই মন্তব্যের জেরে নেটিজেনদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। পাশাপাশি ভুয়ো তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে তাঁকে কাঠগড়ায় তোলেন অনেকে। ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের সাম্প্রতিকতম বুলেটিন দেখিয়ে জানানো হয়, যোগগুরুর বলা হাজার কিংবা ১০ হাজার চিকিৎসক মৃত্যুর তথ্য সম্পূর্ণ ভুল।

কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ে গোটা দেশে গত সপ্তাহ পর্যন্ত ২৪৪ জন চিকিৎসক মারা গেছেন। আর তাঁদের মধ্যে মোটে সাতজনের ভ্যাকসিনের দু’টি ডোজ নেওয়া ছিল।

You might also like