Latest News

রায়গঞ্জে ফিল্মি কায়দায় লরিকে ধাওয়া! উদ্ধার হল ৫০ লাখের বার্মা সেগুন কাঠ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: খবর আগে থেকেই ছিল। আর সেই মোতাবেক একটি লরি ধাওয়া করেই সাফল্য মিলল রায়গঞ্জ বনবিভাগের। ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ওপর তখন একেবারে হইহই কাণ্ড! বেশ খানিকক্ষণ লরিটিকে ধাওয়া করার পর ইটাহারের কাছে সেটিকে ধরতে সক্ষম হয় বনবিভাগের কর্মী-অফিসাররা। তারপর লরিটি তল্লাশি করতেই বেরিয়ে এল মূল্যবান বার্মা সেগুন কাঠ (burma teak wood)। সূত্রের খবর, উদ্ধার হওয়া সেই কাঠের বাজারদর পঞ্চাশ লক্ষ টাকার আশেপাশে। গ্রেফতার করা হয়েছে লরির চালককে। রবিবার সকালে রায়গঞ্জ বনবিভাগের এই সাফল্যে খুশির হাওয়া বন দফতরে।

সূত্রের খবর, মূল্যবান কাঠ (burma teak wood) পাচারের খবর আগেই এসেছিল বন দফতরের কাছে। পুলিশের চোখে ধুলো দিতে লরির ভেতরে বাঁশের টুকরোর মাঝে মাঝে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল বার্মা সেগুন কাঠ। খবর পেয়েই রায়গঞ্জ বনবিভাগের আধিকারিক ও কর্মীরা প্রথমে লরিটিকে চিহ্নিত করেন। এরপর সেটিকে তাড়া করেন আধিকারিকরা। শেষ অবধি ইটাহারে এসে লরিটিকে ধরতে পারে বনবিভাগের গাড়ি।

আরও পড়ুন: সুন্দরবনে মৎস্যজীবীর জালে বিশাল ভেটকি! বাজারে বিক্রি হলো ১৯ হাজার টাকায়

তল্লাশি শুরু হতেই বাঁশের খাঁজে খাঁজে লুকিয়ে রাখা বার্মা সেগুন কাঠগুলি (burma teak wood) উদ্ধার হয়। লরিটি ও কাঠগুলি বাজেয়াপ্ত করে নিয়ে আসা হয় রায়গঞ্জের কর্নজোড়ায় বনবিভাগের আধিকারিকের দফতরে। পরে ধৃত লরি চালককে রায়গঞ্জ থানার পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। রায়গঞ্জ বনবিভাগের অফিসার কমল সরকার জানিয়েছেন, জানা গিয়েছে এগুলো অন্ধ্রপ্রদেশে পাচার হচ্ছিল। সেগুন কাঠগুলির আনুমানিক বাজারমূল্য প্রায় ৪০ থেকে ৫০ লক্ষ টাকা। ঘটনার সঙ্গে আর কেউ জড়িত আছে কিনা, তা জানতে তদন্ত শুরু হয়েছে।

You might also like