Latest News

Purulia: মহিলাকে মালগাড়ির তলা থেকে জ্যান্ত বের করে আনলেন রেলকর্মীরা! কাটা পড়ল হাত

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মালগাড়ির চালক দূর থেকেই দেখতে পাচ্ছিলেন লাইনের উপর কে যেন শুয়ে আছে। আর তখনই কর্তব্য স্থির করে নিয়েছিলেন তিনি (Purulia)। ভেবে নিয়েছিলেন যে করেই হোক, মানুষটাকে বাঁচাতে হবে। কিন্তু অনেক চেষ্টা করেও অবশ্য ঠিক সময়ে গাড়ি থামিয়ে দিতে পারেননি ওই চালক। তবে প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন রেললাইনের উপর শুয়ে থাকা সেই মহিলা।

আরও পড়ুন: মদের আসরে ঝগড়া, কাকাশ্বশুরকে পিটিয়ে মারল জামাই দুরন্ত

ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ পূর্ব রেলের আদ্রা ডিভিশনের আদ্রা-চাণ্ডিল শাখায় (Purulia)। দুই স্টেশনের মাঝে রেললাইনের উপর ওই মহিলা শুয়ে ছিলেন। দূর থেকে তাঁকে দেখতে পেয়ে ব্রেক কষেক চালক। কিন্তু মালগাড়িটি পুরোপুরি থামানো যায়নি। মহিলার উপর দিয়েই ট্রেন চলে যায়। ট্রেনের চাকায় ওই মহিলার একটা হাত কাটা গেছে। তবে তিনি প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন। চালকের তৎপরতাতেই এ যাত্রা বেঁচে গিয়েছেন মহিলা।

মঙ্গলবার সকালে সাড়ে ছটা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে (Purulia)। এতে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। মালগাড়িটি মহিলার উপর দিয়ে বেশ খানিকটা এগিয়ে গিয়ে থেমে যায়। তারপর চাকার নীচ থেকে অনেক কষ্টে মহিলাকে বের করে আনা হয়। তাঁকে উদ্ধার করে আরপিএফ এবং জিআরপি থানার পুলিশ। গুরুতর আহত অবস্থায় মহিলাকে ভর্তি করা হয় রঘুনাথপুর হাসপাতালে।

আত্মহত্যার উদ্দেশেই লাইনের উপর ওভাবে মহিলা শুয়ে ছিলেন বলে মনে করা হচ্ছে। পুলিশ জানতে পেরেছে তাঁর নাম লক্ষ্মীমণি হাঁসদা। মালগাড়ির চালক দূর থেকে তাঁকে দেখতে পেয়ে গাড়ির গতি কমিয়ে দেন। তবু মহিলার আগে গাড়িটি থামাতে পারেননি তিনি। তবে গতি কম থাকায় কিছুদূর এগিয়ে ট্রেন থেমে গিয়েছিল। আর বেশি এগোলে মহিলাকে বাঁচানো সম্ভব হত না। আপাতত ওই মহিলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।  

You might also like