Latest News

ত্রিপুরার রাজনীতি মোড় নেবে শিগগির, হুঙ্কার সুদীপের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মাত্র দেড় মাস। সময় বেঁধে দিয়ে বিক্ষুব্ধ বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায়বর্মণ বললেন, এর মধ্যেই ত্রিপুরার রাজনীতি অন্যদিকে মোড় নেবে। শুধু দেখতে থাকুন।

এখানেই শেষ নয়। সুদীপ স্পষ্ট করে দিয়েছেন, কিছুদিনের মধ্যেই আস্তিন থেকে নতুন তাস বের করবেন তিনি। তাঁর অনুগামীদের বক্তব্য, যা নিয়ে ঘোর অস্বস্তিতে পড়তে হবে বিপ্লব দেব সরকারকে। সুদীপ সরাসরি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেছেন, ত্রিপুরার রাজনীতির সমীকরণ বদলে যাবে। তা হবে দেড় মাসের মধ্যে।
এখন প্রশ্ন হচ্ছে, কী করবেন সুদীপ?
সে ব্যাপারে স্পষ্ট করে কিছু না বললেও তাঁর অনুগামীদের বক্তব্য, একাধিক সরকারি দুর্নীতি ফাঁস করতে চলেছেন ৬ আগরতলার বিধায়ক। তাতে যেমন রয়েছে ত্রিপুরা স্টেট রাইফেলসে নিয়োগ দুর্নীতি তেমন তথ্যসংস্কৃতি দফতরের কোটি কোটি টাকার অনিয়ম। ঘটনা হল এই দুটি দফতরই বিপ্লব দেবের হাতে রয়েছে।

১২ জানুয়ারি বিবেকানন্দ জয়ন্তীতেই সুদীপ প্রকাশ্যে জানিয়ে দিয়েছিলেন, তেইশের ভোটে তিনি আর বিজেপির টিকিটে লড়বেন না। বুধবার, স্বামী বিবেকানন্দের জন্মজয়ন্তী উপলক্ষ্যে দক্ষিণ ত্রিপুরার সাব্রুমে সুদীপ অনুগামীরা একটি রক্তদান শিবির আয়োজন করেছিলেন। কিন্তু তা ভেস্তে যায়। সুদীপের স্পষ্ট অভিযোগ, বিজেপির লোকজনই ঈর্ষান্বিত হয়ে রক্তদান শিবিরের মতো কর্মসূচিকে বানচাল করেছে।

এরপরেই যেন ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে যায় ৬ আগরতলার বিধায়কের। তিনি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়ে দেন, তেইশের ভোটে তিনি আর বিজেপির টিকিটে লড়বেন না। সাংবাদিকরা তাঁকে প্রশ্ন করেন, শোনা যাচ্ছে আপনাকে বিজেপি আর টিকিট দেবে না। পাল্টা সুদীপ বলেন, “উল্টোটা। আমি আর বিজেপির টিকিটে লড়ব না।”

সেই ঘোষণাতেই একপ্রকার বিজেপি-সুদীপ ছাড়াছাড়ি হয়ে গিয়েছে। এখন জল্পনা সুদীপ কোন দলে যাবেন। সেই জল্পনার মাঝেই এখন ত্রিপুরাজুড়ে কৌতূহল, সুদীপ কী এমন করতে চলেছে যাতে ত্রিপুরার রাজনীতি অন্যদিকে বাঁক নিতে পারে? বদলে যেতে পারে সমীকরণ?

You might also like