Latest News

‌অভিষেকের গুলি মন্তব্যে এফআইআর নিচ্ছে না পুলিশ, আদালতের দ্বারস্থ সুকান্ত

দ্য ওয়াল ব্যুরো:‌ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে এফআইআর নিচ্ছে না পুলিশ। তাই এবার আদালতের দ্বারস্থ হল বিজেপি। বিজেপির নবান্ন অভিযানের পর সংবাদ মাধ্যমের সামনে অভিষেক (Abhisekh Banerjee) বলেছিলেন ‘‌আমি থাকলে থাকলে এখানে (‌‌কপালে আঙুল ঠেকিয়ে)‌ গুলি করতাম।’‌ বিজেপির দাবি, তারই পরিপ্রেক্ষিতে জোড়াসাঁকো থানায় এফআইআর করতে যাওয়া হলে, পুলিশ এফআইআর নিচ্ছে না। তাই বাধ্য হয়ে বৃহস্পতিবার আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন তাঁরা।

বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার (Sukanta Majumdar) আদালতের কাছে আর্জি জানিয়েছেন, সর্বভারতীয় তৃণমূল সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে যেন এফআইআর করার অনুমতি যেন দেওয়া হয়। অভিযোগ, নবান্ন অভিযানের দিন বিজেপি কর্মীদের হাতে আক্রান্ত হন কলকাতা পুলিশের এসিপি পদমর্যাদার অফিসার দেবজিৎ চট্টোপাধ্যায়। তাঁকে দেখতে এসএসকেএমে গিয়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখান থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন অভিষেক।

অভিষেক বলেছিলেন, ‘নবান্ন অভিযানের নামে গুন্ডামি হয়েছে। আন্দোলনের নামে দাদাগিরি চলেছে। দুষ্কৃতীদের দিয়ে পুলিশের গাড়িতে আগুন লাগানো হয়েছে। পুলিশকে লোহার রড দিয়ে মারধর করা হয়েছে। বিজেপি নেতাদের মদতেই এসব হয়েছে। তবে পুলিশ ধৈর্য-সংযমের পরিচয় দিয়েছে। পুলিশ চাইলে গুলি চালাতে পারত।’

পুলিশের ওপর আক্রমণের প্রসঙ্গে অভিষেক সেদিন বলেছিলেন ‘ওনাকে বলেছি আপনাকে স্যালুট জানাই, আপনার জায়গায় যদি আমি থাকতাম তাহলে এখানে গুলি করতাম।’ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মন্তব্যের পরেই রাজ্য রাজনীতিতে ঝড় বয়ে যায়। অভিষেকের গুলি মন্তব্য নিয়ে সরব হয় গেরুয়া শিবির।

এ দিন ব্যাঙ্কশাল আদালতে গিয়েছিলেন সুকান্ত। তাঁর দাবি, পুলিশকে এফআইআর নিতে হবে। এরপর পুলিশ কোনও ব্যবস্থা না নিলে, তাঁরা ফের আদালতের দ্বারস্থ হবেন বলেও জানিয়েছেন বলে সূত্রের খবর। সুকান্ত মজুমদারের পক্ষে এ দিন আদালতে সওয়াল করেছেন আইনজীবী কল্লোল মজুমদার।

বেআইনি চাকরি পাওয়া শিক্ষকরা আবর্জনা, ছাত্ররা এঁদের দিকে আঙুল তুলবে: বিচারপতি বিশ্বজিৎ বসু

You might also like