Latest News

ওমিক্রনের ভ্যাকসিন মার্চের মধ্যেই, আশা ফাইজারের

দ্য ওয়াল ব্যুরো : গত নভেম্বরে দক্ষিণ আফ্রিকায় (South Africa) প্রথমবার দেখা গিয়েছিল কোভিডের ওমিক্রন (Omicron) ভ্যারিয়ান্ট, এখন তা ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্ব জুড়ে। এরই মধ্যে সোমবার ফাইজার (Pfizer) কোম্পানি আশা প্রকাশ করল, আগামী মার্চের মধ্যেই ওমিক্রনের ভ্যাকসিন বানিয়ে ফেলা যাবে। ফাইজারের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার আলবার্ট বৌরলা বলেন, বহু দেশের সরকারই ওমিক্রন প্রতিরোধী ভ্যাকসিন চায়। বর্তমানে ব্যাপক হারে ছড়িয়েছে ওই ভ্যারিয়ান্ট। অনেকে ভ্যাকসিনের দু’টি ডোজ নেওয়ার পরেও ওই ভ্যারিয়ান্টে আক্রান্ত হচ্ছেন।

বৌরলা বলেন, “ওমিক্রনের ভ্যাকসিন তৈরি হয়ে যাবে মার্চ নাগাদ। অবশ্য আমি জানি না আদৌ ওই ভ্যাকসিনের প্রয়োজন হবে কিনা। হলেও তা কীভাবে ব্যবহার করা হবে।” বৌরলার মতে, বর্তমানে যে ভ্যাকসিনগুলি চালু আছে, তাদের দু’টি ডোজই ওমিক্রনের ক্ষতিকর প্রভাব অনেকাংশে কমিয়ে দিতে পারে। বড় জোর সেই সঙ্গে বুস্টার ডোজ নেওয়া যেতে পারে। কিন্তু ওমিক্রনের জন্য বিশেষভাবে কোনও ভ্যাকসিন তৈরি হলে তা থেকে অনেক সুবিধা পাওয়া যাবে। সেক্ষেত্রে কেউ আর ভ্যাকসিনের দু’টি ডোজ নেওয়ার পরেও ওই ভ্যারিয়ান্টে আক্রান্ত হবেন না।

ফাইজারের পাশাপাশি ওমিক্রনের ভ্যাকসিন তৈরি করছে মোডার্নাও। সংস্থার সিইও স্টিফেন বানসেল বলেন, তাঁরা এমন এক বুস্টার ডোজ তৈরি করছেন যা ওমিক্রন ও অন্যান্য ভ্যারিয়ান্টের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলবে। তাঁর কথায়, “আমরা বিশ্ব জুড়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে ওমিক্রন নিয়ে আলোচনা করছি। কীভাবে বুস্টার ডোজ প্রয়োগ করলে সবচেয়ে ভাল হয়, তা ভেবে দেখা হচ্ছে।”

You might also like