Latest News

পুজোয় এবার ‘খেলা হবে’! অভিনব থিমে সেজেছে কলকাতার এই মণ্ডপ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্যান্ডেলের (pandal) ভিতরে ঢুকে ঠাকুর দেখার অনুমতি নেই এই বছরেও। কোভিড নিরাপত্তায় এমনটাই নির্দেশ দিয়েছে আদালত। কিন্তু তাই বলে কি থিমের লড়াইয়ে পিছিয়ে রয়েছে শহরের মণ্ডপগুলি! একেবারেই না। শহর জুড়ে একের পর এক প্যান্ডেলে যেভাবে নতুন নতুন অভিনব থিমের বাহার রোজ আত্মপ্রকাশ করছে, তা দেখলে চমকে যেতে হয়।

কোথাও কৃষক আন্দোলনকে সামনে রেখে মণ্ডপ গড়েছে পুজোকমিটি, কোথাও আবার মাতৃপ্রতিমা এনআরসি-র প্রকোপে ঘরবাড়ি খুইয়ে ডিটেনশন ক্যাম্পে জায়গা পেয়েছেন। কোথাও আবার মায়ের মুখ গড়া হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আদলে। আর এবার সামনে এল, বিধানসভা নির্বাচনের জনপ্রিয় স্লোগান, ‘খেলা হবে’ থিম।Imageজোর করে মাংসর দোকান বন্ধ করা নিয়ে অশান্তি, উত্তরপ্রদেশে সক্রিয় বজরং দল

মুখ্যমন্ত্রীর এলাকা ভবানীপুরেই এক পুজো প্যান্ডেল এমন থিম বেছে নিয়েছে। তবে ভোট সংক্রান্ত কোনও কিছু নয়, ভবানীপুর দুর্গোৎসব সমিতির গোটা পুজোমণ্ডপটি সাজানো হয়েছে ফুটবল মাঠের মতো করে। রয়েছে গোলপোস্ট, বেশ কয়েকটি ফুটবল। সাজানো রয়েছে খেলা সংক্রান্ত বিভিন্ন আঁকাও। Imageতবে এই পুজো মণ্ডপের থিমের যে পোস্টার, তাতে নীল–সাদা শাড়িতে ব্যান্ডেজ বাধা পা দিয়ে ফুটবলে কিক মারার কার্টুনচিত্র রয়েছে। তার উপরে লেখা, “এবার ভবানীপুরে মা-এর হাত ধরে খেলা হবে।” Imageথিম-শিল্পী সৌমেন ঘোষ এই বিষয়ে বলেন, ‘‌খেলা হবে স্লোগান এখন ভারত বিখ্যাত। আমরা তাই এই থিমটাকেই বেছে নিলাম। শিশুরা ও যুব সম্প্রদায় যাতে মোবাইল গেমের বদলে আউটডোরে গেমে উৎসাহী হয়ে ওঠে, সেই জন্যই আমাদের এই প্রয়াস।’‌ Imageএবছরের নির্বাচনে পরপর তিনবার জিতে ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল। তার অন্যতম স্লোগান ছিল খেলা হবে। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একাধিক বার একাধিক প্রচারে এই স্লোগান তুলেছেন নিজে। পেয়েছেন জনসমর্থনও। লোকের মুখে মুখে ফিরেছে এই স্লোগান। তিনি নিজে এই ভবানীপুর কেন্দ্র থেকেই রেকর্ড ভাঙা ভোটে জিতেছেন। তাই সেখানেই এবার পুজোতেও ‘খেলা হবে’।

You might also like