Latest News

প্রেম, রাজনীতি আর অটুট বন্ধুত্ব, গ্রামজীবনের মনের কথা শোনাল ‘পঞ্চায়েত ২’

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ক্যাট পরীক্ষা দিলেও তাতে পাশ করতে পারেননি অভিষেক ত্রিপাঠি। তাই আরও এক বছর ফুলেরা গ্রামেই থাকতে হবে তাঁকে। মাসের পর মাস এই গ্রাম্য পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ত্রিপাঠি। ফুলেরা গ্রাম পঞ্চায়েতের সচিব তিনি। (Panchayet 2 Review)

পঞ্চায়েত প্রধান ও সদস্যদের সঙ্গে অভিষেকের সম্পর্ক ভালই। তবে এই গ্রাম্য জীবন থেকে বেরিয়ে আসতে চান তিনি। হয়তো ভবিষ্যত খুঁজতেই একদিন গ্রামের একমাত্র জলের ট্যাঙ্কের মাথায় উঠেছিলেন অভিষেক। আর সেখানেই দেখা হয়ে যায় প্রধানের মেয়ে রিঙ্কির সঙ্গে! ‘পঞ্চায়েত’ ওয়েব সিরিজের প্রথম সিজনে এভাবেই দাঁড়ি টেনেছিলেন লেখক চন্দন কুমার।

Panchayat Season 2' Review: Intuitive Exploration of Rural India Retains  Its Humour

সেই থেকেই দর্শকের মনে প্রশ্ন জাগতে শুরু করে, এবার কি অভিষেক-রিঙ্কির প্রেম হবে? ফুলেরা গ্রামে কেমন কাটছে অভিষেকের জীবন? সব প্রশ্নের উত্তর সাজিয়েই এবারের গল্পটা জমিয়ে তুলল ‘পঞ্চায়েত ২’ (Panchayet 2 Review)।

যাঁরা ভাবছিলেন অভিষেক আর রিঙ্কির প্রেম হবে কিনা, তাঁদের জন্য পুরো সিজন জুড়েই রইল কিছু টুকরো টুকরো ছবি। এই সিজনের প্রথমেই এই প্রশ্নকে আরও খানিক উস্কে দিয়েছিলেন লেখক। যেখানে দেখা গেছে চিন্তিত অভিষেককে সান্ত্বনা দিচ্ছেন রিঙ্কি আবার সেই রিঙ্কিকেই সমস্যা থেকে বের করতে পথ দেখাচ্ছেন অভিষেক। তবে শেষ পর্যন্ত সেই জল্পনা জিইয়েই রাখলেন তিনি। সেই সঙ্গে গ্রামের পরিবেশে নিখুঁত দক্ষতায় ফুটিয়ে তুললেন রাজনীতির খুঁটিনাটি।

গ্রামের প্রধান, উপপ্রধান, পঞ্চায়েত সহায়ক ও সচিবের রোজকার জীবনের ছবি ফুটে উঠেছে ‘পঞ্চায়েত’-এর এই সিজনে। সঙ্গে আছে গ্রামের মানুষের নানান সমস্যা, মতানৈক্য, প্রেম, বন্ধুত্ব, মনোমালিন্যের সাতকাহন। এই ফুলেরা গ্রামের মানুষজন বৃহত্তর ভারতের রাজনীতি নিয়ে মাথাই ঘামান না, যেন মনে করিয়ে দেয় বিভূতিভূষণের আরণ্যককে।

‘পঞ্চায়েতের’ মতো কমেডি-ড্রামা প্রথম থেকেই দর্শকদের মনে দাগ কেটেছিল। প্রথম সিজন শেষ হওয়ার পর দর্শক অপেক্ষা করে ছিলেন পরের সিজনের জন্য, দ্বিতীয় সিজনের পরেও সেই একই রেশ থেকে গেল। যদি দুই পর্বের পার্থক্য অনেক। এই পর্বে আগেরবারের মত কোনও সামাজিক ইস্যু তৈরি করাই হয়নি। নারী ও পুরুষের বৈষম্যের মত বিষয় উঠে আসেনি ‘পঞ্চায়েতের’ পর্দায়।

Image - প্রেম, রাজনীতি আর অটুট বন্ধুত্ব, গ্রামজীবনের মনের কথা শোনাল 'পঞ্চায়েত ২'

‘পঞ্চায়েত ২’তে আছে শুধু গ্রামের কথা, গ্রামের মানুষের কথা, তাঁদের সমস্যা, হাসি মজা আনন্দের কথা। অভ্যন্তরীণ ঝুটঝামেলা এড়িয়ে বহিরাগত সমস্যায় একজোট হয়ে দাঁড়ানো যে কোনও গ্রামের রন্ধ্রে বয়ে চলা নিজস্ব বৈশিষ্ট্য, পঞ্চায়েতের ফুলেরাতেও তার ব্যতিক্রম হতে দেননি পরিচালক। পরতে পরতে গল্প এগিয়েছে। সিজনের শেষে এসে ফের এমন মোড়কে গল্পকে দাঁড় করিয়েছেন লেখক, যেখানে দর্শক মনে ফের পরের সিজনের জন্য আকুলতা তৈরি হতে বাধ্য।

এই সিজনেও আগের বারের মত তুখোড় অভিনয় দেখার সুযোগ থাকবে দর্শকদের। অভিষেক ত্রিপাঠির চরিত্রে জিতেন্দ্র কুমার সাধারণ। প্রধানের ভূমিকায় রঘুবীর যাদব ও মঞ্জু দেবীর চরিত্রে নীনা গুপ্তা যথাযথ। পার্শ্বচরিত্রে বাকিরাও খুবই দক্ষতার সঙ্গে অভিনয় করেছেন। পঞ্চায়েতের প্রথম সিজন পছন্দ হলে দ্বিতীয়টাও মন্দ লাগবে না।

‘কান’-এ মুক্তি পেল বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের ট্রেলার, বড় পর্দায় আসছে সেপ্টেম্বরেই

You might also like