Latest News

এক দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় অন্য দেশের পার্লামেন্টে আলোচনা নয়: জি-২০ সামিটে ওম বিড়লা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রোমে চলছে জি-২০ পার্লামেন্টারি স্পিকারদের সম্মেলন, যোগ দিয়েছেন ভারতীয় পার্লামেন্টারি ওম বিড়লা (om birla)। সেখানেই বিশ্বের দরবারে কাশ্মীর-ইস্যু নিয়ে আলোচনার বিরুদ্ধে সরব হলেন তিনি। হাউস অফ কমনসের স্পিকার স্যার লিন্ডসে হয়লের সঙ্গে একটি দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় বিড়লা বলেন, প্রতিটি দেশের নিজস্ব সার্বভৌমত্ব রয়েছে। অন্য দেশের উচিত তাকে সম্মান করা।

বিড়লার কথায়, “কোনও দেশেরই উচিত নয় তার পার্লামেন্টে অন্য কোনও দেশের অভ্যন্তরীণ সমস্যা নিয়ে আলোচনা করা, যতক্ষণ না তা তার নিজের দেশের ক্ষেত্রে প্রাসঙ্গিক হয় বা সেই দেশকে প্রভাবিত করে।”

এই ঘটনার প্রেক্ষাপট কয়েক সপ্তাহ আগে। ব্রিটিশ পার্লামেন্টের একটি সর্বদলীয় আলোচনায় একাধিক বার প্রসঙ্গ ওঠে কাশ্মীরের মানবাধিকার নিয়ে। এই প্রথম নয়। একাধিকবার ব্রিটিশ পার্লামেন্টে এই আলোচনা উঠেছে। পার্লামেন্টের সদস্যরা কাশ্মীর সমস্যায় ভারত সরকারের ভূমিকা নিয়ে কথা বলেছেন।

লখিমপুর: ২০০০ সাল থেকে খুনের মামলা চলছে অজয় মিশ্রর বিরুদ্ধে, আজও আতঙ্কে নিহতের পরিবার

এ নিয়ে ভারত সরকারের বিদেশ মন্ত্রক একাধিক বার সরকারি ভাবে প্রতিবাদ জানিয়েছে আগেই। এবার স্পিকারও সরকারের সুরে সুর মিলিয়ে সেই একই কথা বললেন আন্তর্জাতিক সম্মেলনে।

অথচ মজার বিষয় হল, কাশ্মীরের অবস্থা যে কত ‘ভাল’, তা গোটা বিশ্বকে দেখানোর জন্য বিভিন্ন দেশের ডেলিগেটদের একাধিক বার ডেকে এনেছে ভারত সরকার। বস্তুত, কাশ্মীর খুবই স্পর্শকাতর একটা বিষয় হয়ে উঠছে সরকারের কাছে। অনেক ক্ষেত্রে এমনও হয়েছে, দেশেরই বিরোধী দলনেতা যখন কাশ্মীরে ঢোকার অনুমতি পাচ্ছেন না, তখন বিদেশি অতিথি কাশ্মীর ঘুরে দেখে গেছেন। আবার একই সঙ্গে, সেই বিদেশের পার্লামেন্টেই কেন কাশ্মীর ইস্যু উঠবে, তা নিয়েও ষোলো আনা আপত্তি রয়েছে সরকারের।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like