Latest News

ভেন্টিলেশন থেকে বেরোল একরত্তি, রাতে দেওয়া হবে মধু

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এখনও পুরোপুরি বিপন্মুক্ত নয়। তবু কিছুটা যেন স্বস্তির নিশ্বাস। হৃদযন্ত্রের সমস্যা নিয়ে জন্মানো হরিণঘাটার একরত্তিকে অস্ত্রোপচারের পর বের করা হল ভেন্টিলেশন সাপোর্ট থেকে। মঙ্গলবার দীর্ঘ অস্ত্রোপচার হয়েছিল। এদিন তাকে ভেন্টিলেশন সাপোর্টের বাইরে আনা হয়।

মুকুন্দপুরের বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে জয়ন্ত দেবনাথ ও পূজা দেবনাথের ছ’দিন বয়সি মেয়ের। যাঁর চিকিৎসার জন্য ঝাঁপিয়ে পড়েছিল সাংসদ তথা তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের টিম।

দিন পাঁচেক আগে দমদমের একটি বেসরকারি হাসপাতালে জন্ম নেয় এই শিশুটি। জন্মের পর দেখা যায় তার হৃদযন্ত্রে সমস্যা রয়েছে। চিকিৎসা কোথায় করানো হবে কী ভাবে করানো হবে তাই নিয়ে শুরু হয় তোলপাড়। কারণ সরকারি হাসপাতালের মধ্যে এসএসকেএম ছাড়া এই অস্ত্রোপচার কোথাও হয় না। সেখানে ভর্তির সূত্র জানা ছিল না দেবনাথ পরিবারের। আর বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার সাধ্য তাদের ছিল না। এক পরিচিত মারফৎ এই খবর পান টলিউডের এডিটর অনির্বাণ মাইতি।  তারপর তিনি ফেসবুকে একটি পোস্ট করেন। সেই সূত্র ধরেই আসরে নামে অভিষেকের টিম। ওই রাতেই বাচ্চাটিকে ভর্তি করা হয় মুকুন্দপুরের বেসরকারি হাসপাতালে। সমস্ত খরচের দায়িত্ব নেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন সদ্যোজাতর বাবা জয়ন্ত দেবনাথ বলেন, “ডাক্তারবাবুরা বলেছেন আরও ৪৮ ঘণ্টা ওকে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। তবে ফিডিং করানো শুরু হবে। সেটা নিতে পারাটাই আসল। বুধবার রাতে সদ্যোজাতকে মধু দেওয়া হবে। কাল থেকে মাতৃদুগ্ধ দেওয়ার চেষ্টা করা হবে।” টেনশন হয়তো পুরোটা কাটেনি। তবে কিছুটা স্বস্তি তো বটেই। ভেন্টিলেশনের বাইরে একরত্তি। তাকিয়েছে চোখ মেলে।

You might also like