Latest News

দুই শিশুর ঝগড়া থেকে তুমুল বোমাবাজি, ফের অশান্ত কাঁকিনাড়া

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফের বোমাবাজিতে উত্তপ্ত হল কাঁকিনাড়া। দুটি শিশুর ঝগড়া গড়াল বোমাবাজিতে। দুই পরিবারের লোকজন জড়ো হয়ে একে অন্যের বিরুদ্ধে বোমা ছুড়ল। বৃহস্পতিবার দুপুরে এই ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে কাঁকিনাড়া বাজার এলাকা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় ব্যারাকপুর কমিশনারেটের বিরাট পুলিশ বাহিনী। তারপর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এলাকায় বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেট।

বোমার সপ্লিন্টারের আঘাতে দু’জন গুরুতর জখম হয়েছেন। বাড়ির দেওয়ালে বোমা মারার দাগ স্পষ্ট। পুলিশ গিয়ে বেশ কিছু বোমা উদ্ধার করে সেগুলিকে নিষ্ক্রিয় করে।

এই ঘটনার পর ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং বলেন, “এর পুরো দায় প্রশাসনের। কারণ, এখানে বোমার চাষ হচ্ছে। সমাজবিরোধীরা প্রকাশ্যে ঘুরছে আর ভাল লোকেদের জেলে ভরে রাখা হয়েছে।” তিনি আরও বলেন, “ভাটপাড়া-সহ আশপাশের এলাকা শান্ত হওয়ার পরে আমি পুলিশকে বলেছিলাম, নিরপেক্ষ হয়ে কাজ করুন। যা বোমা-বন্দুক আছে সেগুলো উদ্ধার করুন। কিন্তু পুলিশ সে সব করেনি। কারণ তৃণমূলকে পুলিশ বিরক্ত করতে চায় না।”

স্থানীয় তৃণমূল নেতা সোমনাথ শ্যাম বলেন, “শান্ত এলাকাকে অশান্ত করতে অর্জুন সিং-এর  লোকজনই এসব করছে।”

তবে অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে। তাঁদের বক্তব্য, যেখানে দুই শিশুর বচসা থেকে বোমাবৃষ্টি হয় সেখানে কি আদৌ আইনশৃঙ্খলা বলে কিছু আছে?

লোকসভা ভোটের সময় থেকে কয়েক মাস ধরে চলেছিল এই এলাকায় তাণ্ডব। বোমাবাজি, গুলি চালানো কার্যত রুটিনে পরিণত হয়েছিল ভাটপাড়া, কাঁকিনাড়া, জগদ্দল, নোয়াপাড়া-সহ বিভিন্ন এলাকায়। পুলিশ কমিশনার বদল করেও শুরুতে লাভ হয়নি। পরিস্থিতি এমন জায়গায় যায় যে, রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্র ভাটপাড়া যাওয়ার পথে গাড়ি ঘুরিয়ে নিয়ে ফিরে আসেন নবান্নে। তারপর রোজকার অশান্তি বন্ধ হলেও এদিনের ঘটনা আরও একবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল, ওই এলাকায় বোমা-বন্দুকের ছড়াছড়ি।

You might also like