Latest News

বিধানসভায় পার্থর ঘরে তৃণমূলের পতাকা ধরলেন সব্যসাচী, শুভেন্দু বললেন নির্লজ্জ দলতন্ত্র

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সব্যসাচী দত্ত তৃণমূলে (TMC) ফিরেছেন বৃহস্পতিবার। কাকতালীয় হল, এদিনই বিধায়ক হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শপথ নিয়েছেন বিধানসভায়। সেই অনুষ্ঠানের পর দিদির সঙ্গে দেখা করেন সব্যসাচী। তারপর পরিষদীয় মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় নিজের ঘরে সব্যসাচীর হাতে তৃণমূলের পতাকা তুলে দেন। সঙ্গে ছিলেন ফিরহাদ হাকিমও। বিধানসভার মধ্যে এ ভাবে দলীয় পতাকা ধরানো নিয়েই তৈরি হয়েছে বিতর্ক।

আদালতের ভ্যাকসিন বিধানে ব্যথিত বহু পুজো কমিটি অঞ্জলি, সিঁদুরখেলা বাদ রাখছে এবছরও

বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী এই ঘটনার তীব্র সমালোচনা করে বলেছেন, নির্লজ্জ দলতন্ত্রের নজির তৈরি হল বিধানসভায়। যে ঘটনা আজ ঘটেছে তা বিধানসভার গরিমাকে কলঙ্কিত করল।

এই ঘটনা নিয়ে প্রাক্তন বিরোধী দলনেতা তথা প্রবীণ কংগ্রেস নেতা আবদুল মান্না এতটাই বিরক্ত যে তিনি কোনও প্রতিক্রিয়াই দিতে চাননি। শুধু বলেন, এসব নিয়ে আর কিছু বলতে ইচ্ছে করে না।
সিপিএম নেতা তথা গত মেয়াদের বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, “দলতন্ত্রের প্রতিদিনই নতুন রেকর্ড গড়ছে তৃণমূল। নবান্ন থেকে দল পরিচালনা, সরকারি প্রকল্পের মোড়কে দলের কাজ চলছিলই। বিধানসভার প্রেস কর্ণারেও এর আগে দল ভাঙানোর ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু এবার খোদ স্পিকারের ঘরের পাশে পরিষদীয় মন্ত্রীর ঘরে তৃণমূলের পতাকা ধরানো হলো। আরও একবার প্রমাণ হল, তৃণমূলের বাহিনী সংবিধান, গণতন্ত্র কিচ্ছু মানে না।”
এর আগে গয়েশপুর, হালিশহর-সহ একাধিক পুরসভার তৃণমূল কাউন্সিলর যাঁরা বিজেপিতে গিয়েছিলেন তাঁদের ঘর ওয়াপসি হয়েছিল। নদিয়া জেলার নেতাদের নিয়ে দিদির বৈঠকও হয়েছে বিধানসভায়।

তখন নদিয়া তৃণমূলে গৌরীশঙ্কর দত্ত, অজয় দে-র কোন্দল চরম আকার নিয়েছে। তবে অনেকের মতে সেসবের তবু একটা আগল ছিল। কিন্তু এদিন সব ভেঙে গিয়েছে।

যদিও এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলেও পরিষদীয় মন্ত্রী তথা তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like