Latest News

জেট এয়ারওয়েজের কাছে ৩০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি এক যাত্রীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বিমানের কেবিনে বায়ুর চাপ কমে যাওয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন জেট এয়ারওয়েজের বেশ কিছু যাত্রী। এ বার গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়া জেট এয়ারওয়েজের এক যাত্রী ৩০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করলেন সংশ্লিষ্ট বিমান সংস্থার কাছে।

শুধু তাই নয়, তাঁর আরও দাবি, ইকনমি ক্লাসে (তুলনায় কম দামি) টিকিট কাটা সত্ত্বেও তাঁকে বিজনেস ক্লাসে ভ্রমণের সুযোগ সুবিধার জন্য ১০০টি আপগ্রেড ভাউচার দিতে হবে।

প্রসঙ্গত, আকাশে কেবিনের বায়ুচাপ বাড়ানো হয়নি বলে বৃহস্পতিবার মুম্বই থেকে জয়পুরগামী জেট এয়ারওয়েজের বিমানে যাত্রীরা অসুস্থ হয়ে পড়েন। অন্তত ৩০ জন যাত্রীর নাক, মুখ দিয়ে গলগল করে রক্ত বেরতে থাকে। গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ায় পাঁচ জন যাত্রীকে ড. বালাভাই নানাবতী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁদেরই এক জন জেট এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষের কাছে ওই ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন। অভিযোগ, তাঁর দাবি না মানা হলে ওই সময় বিমানের কেবিনের কী অবস্থা ছিল, গোপনে তুলে রাখা তার ভিডিও ওই যাত্রী সংবাদমাধ্যমের হাতে তুলে দেওয়ারও হুমকি দিয়েছেন।

বিমানে যাত্রী ছিলেন ১৭১ জন। আকাশে ওড়ার সময় যাত্রী ও লাগেজের জন্য বিমান বেশি ভারী হয়ে গিয়েছিল বলে কেবিনে বায়ুচাপ বাড়ানোর সুইচ বন্ধ করে দিয়েছিলেন জেট এয়ারওয়েজের পাইলট। আকাশে ওঠার পর সেই সুইচ ফের চালু করতে বেমালুম ভুলে যান একজন বিমানকর্মী।

উড়ান সংস্থাটির এক অফিসার বলেছেন, ‘‘যাত্রী পরিষেবার বিষয়টি অবহেলা করা হয়েছে বলে ওই যাত্রীর অভিযোগ। তারই প্রেক্ষিতে তিনি ওই ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন।’’ আইন অনুযায়ী, বিমানে ভ্রমণের সময় কোনও কারণে আহত হলে, যাত্রীকে ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য সংশ্লিষ্ট উড়ান সংস্থা।

জেট এয়ারওয়েজের তরফে জানানো হয়েছে, শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসেবে সংশ্লিষ্ট কর্মীদের আপাতত কাজের বাইরে রাখা হয়েছে। ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করতে বলা হয়েছে এয়ারক্র্যাফ্ট অ্যাক্সিডেন্ট ইনভেস্টিগেশন ব্যুরো (এএআইবি)-কে।

You might also like