Latest News

ব্রিটেন স্ট্রেনের প্রকোপ উত্তর ভারতে, মহারাষ্ট্র-গুজরাটে ডালপালা মেলছে ডবল ভ্যারিয়ান্ট, সতর্ক করলেন বিজ্ঞানীরা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: উত্তর ভারতের রাজ্যগুলিতে ব্রিটেন স্ট্রেনের প্রকোপ সবচেয়ে বেশি। তবে মহারাষ্ট্র, গুজরাট, কর্নাটকে করোনার ডবল ভ্যারিয়ান্ট দ্রুত গতিতে ছড়াচ্ছে। এমনটাই জানালেন জাতীয় রোগ নিয়ন্ত্রক কেন্দ্র তথা ন্যাশনাল সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (এনসিডিসি)-এর ডিরেক্টর সুজিত সিং।

এনসিডিসি-র তরফে জানানো হয়েছে, উত্তর, পশ্চিম ও দক্ষিণ ভারতে ব্রিটেন স্ট্রে তথা বি.১.১.৭ ভ্যারিয়ান্টের প্রকোপ একটা সময় সবচেয়ে বেশি ছিল। কিন্তু মার্চ-এপ্রিলের পরে দেখা যাচ্ছে, পশ্চিম ও দক্ষিণ ভারতে ব্রিটেন স্ট্রেন অপেক্ষাকৃত দুর্বল হয়ে পড়েছে। কিন্তু পাঞ্জাব, দিল্লিতে ব্রিটেন স্ট্রেন এখনও সক্রিয়। পাঞ্জাবে অন্তত ৪৮২ জন করোনা রোগীর নমুনায় ও দিল্লিতে পাঁচশোর বেশি নমুনার জিনোম সিকুয়েন্স করে ব্রিটেন স্ট্রেন খুঁজে পাওয়া গিয়েছে।

কোভিডের ভারতীয় প্রজাতি তথা ডবল ভ্যারিয়ান্ট মহারাষ্ট্র, গুজরাট, কর্নাটক, তেলঙ্গানায় তাণ্ডব করে চলেছে, এমনটাই দাবি জবেষক সুজিত সিংয়ের। তিনি বলছেন, পশ্চিম ও দক্ষিণের রাজ্যগুলিতে ডবল ভ্যারিয়ান্ট সুপার-স্প্রেডার হয়ে ছড়িয়ে পড়েছে। পশ্চিমবঙ্গেও এই ভ্যারিয়ান্টের প্রকোপ বেশি। মহারাষ্ট্রে ৭৬১ জন করোনা রোগীর নমুনায় এই স্ট্রেন পাওয়া গিয়েছে। এনসিডিসি জানাচ্ছে, করোনার ডবল মিউট্যান্ট ভ্যারিয়ান্ট ছড়িয়ে পড়েছে ১৮টি রাজ্যে। ‘ইন্ডিয়ান সার্স-কভ-২ জিনোমিক্স কনসরটিয়াম’ (INSACOG) ১০,৭৮৭ কোভিড আক্রান্তের নমুনার জিনোম সিকুয়েন্স বা জিনের গঠন বিন্যাস বের করে ৭৭১ রকম ভ্যারিয়ান্ট পেয়েছে, যার মধ্যে করোনার তিন বিদেশি প্রজাতি যথা ব্রিটেন স্ট্রেন (বি.১.১.৭), দক্ষিণ আফ্রিকার মিউট্যান্ট স্ট্রেন (বি.১.৩৫১) ও ব্রাজিলিয় স্ট্রেনের (পি.১) ছাড়াও রয়েছে ডবল ভ্যারিয়ান্ট তথা বি.১.৬১৭ স্ট্রেন।

ডবল ভ্যারিয়ান্টে দুটি মিউটেশন হচ্ছে– E484Q এবং  L452R। দুবার বদলের ফলে করোনার স্পাইক প্রোটিনে অ্যামাইনো অ্যাসিডের বিন্যাস বদলে গেছে। কেরলে N440K মিউটেশন বেশি দেখা গেছে। রাজ্যের অন্তত ১৪টি জেলায় এমন মিউট্যান্ট স্ট্রেন ছড়িয়ে পড়েছে। গবেষক বলছেন, মানুষের মেলামেশা, জনসমাগম যত বাড়ছে কোভিড স্ট্রেন তত দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। যত বেশি মানুষের শরীরে ঢুকছে স্ট্রেনের জেনেটিক মিউটেশন ততটাই বেশি হচ্ছে। তাই কোভিডের সুপার-স্প্রেডার জিনের আধিক্য বাড়ছে দেশে।

You might also like