Latest News

প্রজাতন্ত্র দিবসে জঙ্গি নিশানায় প্রধানমন্ত্রী, হামলার ছক লালকেল্লা ও ইন্ডিয়া গেটে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রজাতন্ত্র দিবসে বড়সড় জঙ্গি হামলা হতে পারে রাজধানীতে। সতর্ক করেছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (এনআইএ)। গোয়েন্দা সূত্র জানাচ্ছে, লালকেল্লা, ইন্ডিয়া গেট সহ রাজধানীর একাধিক জায়গায় নাশকতার ছক কষেছে জঙ্গিরা। সন্ত্রাসবাদীদের নিশানায় রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সহ নেতা-মন্ত্রী ও ভিআইপিরা।

এনআইএ জানাচ্ছে, পাকিস্তানের জঙ্গি গোষ্ঠীরা সক্রিয় হয়ে উঠেছে। প্রজাতন্ত্র দিবসের দিনে পাক মদতপুষ্ট জঙ্গিগোষ্ঠীর স্লিপার সেল ছড়িয়ে পড়তে পারে রাজধানীর আনাচ কানাচে। জইশ-ই-মহম্মদ, লস্কর-ই-তইবা, হরকত-উল-মুজাহিদিন, হিজব-উল-মুজাহিদিন ইত্যাদি জঙ্গি সংগঠন রয়েছে সন্দেহের তালিকায়। ড্রোনের মাধ্যমেও হামলা হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন গোয়েন্দারা।

এ বার প্রজাতন্ত্র দিবসে প্রধান অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে মধ্য এশিয়ার পাঁচটি দেশ— কাজাখস্তান, তাজিকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান, কিরঘিজস্তান এবং উজবেকিস্তানের শীর্ষ নেতাদের। বিদেশি অতিথিরাও জঙ্গিদের নিশানায় রয়েছেন বলে গোয়েন্দা সূত্রে খবর। জঙ্গিরা পাকিস্তান থেকে বিস্ফোরক ভারতে নিয়ে আসছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। সম্প্রতি গাজিপুর মাণ্ডিতে যে আইইডি মিলেছিল, সেটাও এই কারণেই বলে সন্দেহ করছেন গোয়েন্দা অফিসাররা। গাজিপুর ফুল মাণ্ডিতে গত সপ্তাহেই আরডিএক্স ও অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট ভরা আইইডি মিলেছিল। ব্যাগ ভর্তি সেই বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়। অন্যদিকে, ওড়িশার স্বাভিমানের কাছের জঙ্গলে তল্লাশি চালিয়ে প্রচুর বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, অন্ধ্রপ্রদেশ সীমানার জোদাম্বা থানার ওই এলাকা থেকে পাওয়া গিয়েছে প্রচুর বিস্ফোরক, ওষুধ ও সাজ-সরঞ্জাম। শ্রীনগরেও শুক্রবার একটি প্রেসার কুকার বোমা খুঁজে পেয়ে নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক সীমান্তের কাছে অটারি থেকে উদ্ধার হয়েছে পাঁচ কিলোগ্রাম বিস্ফোরক ও এক লক্ষ টাকা।

গোয়েন্দারা বলছেন, নিষিদ্ধ খালিস্তানি সংগঠন শিখ ফর জাস্টিস প্রজাতন্ত্র দিবসে হামলার ছক কষছে। পাকিস্তানে থাকা খলিস্তানি গোষ্ঠী পাঞ্জাবেও অশান্তি বাঁধাচ্ছে। অন্যান্য রাজ্যেও হামলা হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। নিকরাপত্তার জন্য বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কমান্ডো নামাচ্ছে দিল্লি। কাশ্মীর বা মাওবাদী অধ্যুষিত অঞ্চলে যাঁরা জঙ্গি দমন অভিযানে সাফল্য পেয়েছেন, এমন সিআরপি কমান্ডো বাহিনীকে নিরাপত্তার জন্য মোতায়েন করা হবে বলে জানা গিয়েছে। আজ থেকেই দিল্লিকে অ্যান্টি-ড্রোন এলাকা হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকাসুখপাঠ

You might also like