Latest News

দাঁত মাজতে মাজতে ভার্চুয়াল শুনানিতে হাজিরা, রেগে গেলেন হাইকোর্টের বিচারপতি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সশরীরে এখন আদালতে হাজিরা দিতে হচ্ছে না। করোনার কারণে সবই ভার্চুয়াল। ল্যাপটপ খুলে ইন্টারনেট অন করে বিচারপতির সামনে হাজিরা দিলেই হবে। এত সুযোগ সুবিধা পেয়ে তাই ব্যাপারটা হাল্কা ভাবেই নিয়েছিলেন এক ব্যক্তি। দাঁত মেজে কুলকুচি করতে করতেই বিচারপতির সামনে হাজিরা দেন। আর তাতেই বেজায় চটে যান বিচারপতি ও আইনজীবীরা। ধমক ধামক দিয়ে সতর্কও করা হয় তাঁকে।

কিছুদিন আগেই মাদ্রাজ হাইকোর্টে ভার্চুয়াল শুনানি চলার সময় এক মহিলার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দেখা যায় এক আইনজীবীকে। সেই খবর ভাইরাল হয়েছিল। আর এখন কেরল হাইকোর্টে ভার্চুয়াল শুনানির সময় ফের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটল।

বিচারপতি ভি জে অরুণের সিঙ্গল বেঞ্চে ভার্চুয়াল শুনানির সময় এক ব্যক্তিকে দাঁত মাজতে দেখা যায়। ক্যামেরার দিকে মুখ করেই তিনি কখনও দাঁত মাজছিলেন, কখনও কুলকুচি করে মুখ ধুচ্ছিলেন আবার দাড়িও কাটছিলেন। পরিষ্কার বোঝা গেছে, ঘরে নয় বাথরুমেই ল্যাপট রেখে শুনানিতে হাজিরা দিয়েছেন তিনি। বিচারপতি প্রথমে ব্যাপারটা খেয়াল করেননি। পরে সকলের দৃষ্টি সেদিকে গেলে তিনিও দেখেন একমুখ সাবানের ফেনা নিয়ে দাড়ি কাটতে কাটতে একজন ক্যামেরার সামনে ঘুরছেন। মুখে গোঁজা ব্রাশ। হাইকোর্টের শুনানির সময় এমন বিশৃঙ্খলা দেখেই তিনি রেগে যান।

হাইকোর্টের অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ কমিটির চেয়ারম্যান ও প্রধান বিচারপতি এ মণিশঙ্করের নির্দেশে ওই ব্যক্তিকে সতর্ক করা হয়েছে। ভার্চুয়াল শুনানির সময এমন কাণ্ড আর যাতে না ঘটে সে দিকে খেয়াল রাখতে বলা হয়েছে।

দেশ জুড়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। এই অবস্থায় আপাতত ভার্চুয়াল শুনানিই চলছে আদালতে। শারীরিকভাবে এজলাসে হাজির হতে হচ্ছে না। আর এই ডিজিটাল শুনানির সময়েই নানারকম অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটছে। কেরল হাইকোর্টে আইনজীবী আর ডি সান্থানা কৃষ্ণণ শুনানির সময এক মহিলার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় ধরা পড়েন। তারপরেই আইনজীবীর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেয় কাউন্সিল। নির্দেশ দেওয়া হয়, সমস্ত আদালত, ট্রাইব্যুনাল এবং বিচারবিভাগের সঙ্গে জড়িত প্রতিষ্ঠানে প্র্যাকটিস করতে পারবেন না সান্থানা। অভিযোগ থেকে যত দিন না মুক্তি পাবেন তত দিন কাজ থেকে বিরত থাকতে হবে তাঁকে। সান্থানার বিরুদ্ধে একটি স্বতঃপ্রণোদিত মামলাও রুজু করা হয়।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা সুখপাঠ               

You might also like