Latest News

রাশিয়ার সঙ্গে ৬ লাখ একে-২০৩ রাইফেলের চুক্তি প্রায় পাকা ভারতের, শিগগির শুরু হবে উৎপাদন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভারতীয় সেনাবাহিনীর অস্ত্র ভাণ্ডার বাড়াতে রাশিয়ার সঙ্গে ঐতিহাসিক চুক্তি করতে চলেছে ভারত। ৬ লাখ উন্নত মানের একে-২০৩ রাইফেল তৈরির চুক্তি হতে চলেছে দু’দেশের মধ্যে। প্রথমে ২০ হাজার রাইফেল কেনা হবে রাশিয়া থেকে। তারপর মেক ইন ইন্ডিয়া প্রজেক্টের আওতায় দু’দেশ যৌথভাবে তৈরি করবে এই রাইফেল, এমনটাই জানা গিয়েছে।

সূত্রের খবর, এই বছরের শেষেই এই রাইফেল উৎপাদন শুরু হবে। এই রাইফেল বিদেশে রফতানি করারও সুযোগ থাকবে। চুক্তি অনুযায়ী, প্রথমে রাশিয়া থেকে ২০ হাজার একে-২০৩ রাইফেল কেনা হবে। প্রতিটি রাইফেলের দাম ৮০ হাজার টাকা। আগামী দিনে এই রাইফেলই ভারতীয় সেনাবাহিনীর জওয়ানদের হাতে দেখা যাবে।

জানা গিয়েছে, বাকি রাইফেলগুলি ভারতে উৎপাদন করাব হবে। ইন্দো-রাশিয়া রাইফেলস প্রাইভেট লিমিটেড নামের একটি কোম্পানির আওতায় হবে এই উৎপাদন। এই কোম্পানিটি ভারতের ইন্ডিয়ান অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরি বোর্ড এবং রাশিয়ার কালাশনিকভ কনসার্ন ও রসোবরোনেক্সপোর্ট কোম্পানি মিলে তৈরি হয়েছে। ইন্ডিয়ান অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরি বোর্ডের ৫০.৫ শতাংশ, কালাশনিকভ কনসার্নের ৪২ শতাংশ ও রসোবরোনেক্সপোর্টের ৭.৫ শতাংশ শেয়ার রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এভাবে ভারতে তৈরি করলে তার খরচ আমদানির থেকে কম হবে বলেই জানা গিয়েছে।

২০১৮ সালে এই চুক্তির কথা প্রথম জানানো হয়। কিন্তু দু’দেশের কোম্পানিদের মধ্যে দাম নিয়ে বহুদিন ধরে কথাবার্তা চলতে থাকায় তা বাস্তবায়নে কিছুটা দেরি হল। এই সমস্যা যাতে বেশিদিন না চলে তার জন্য একটি কমিটিও তৈরি করে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। সেই কমিটিই চুক্তি নিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা চালায়।

তবে এই চুক্তিতে দেরি হওয়ায় ভারতীয় সেনা আমেরিকা থেকে এসআইজি ৭১৬ রাইফেলের বরাত দেয়। ইতিমধ্যেই ৭২ হাজার রাইফেল আমদানি হয়ে গিয়েছে। জরুরি ভিত্তিতে আরও ৭২ হাজার রাইফেলের বরাত দিয়েছে সেনা। অবশ্য তারমধ্যেই এবার একে-২০৩ রাইফেলের উৎপাদন শুরু হওয়ার খবরে সেনার অস্ত্র ভাণ্ডার আরও অনেক শক্তিশালী হবে বলেই মনে হচ্ছে।

কেমন এই অত্যাধুনিক অ্যাসল্ট রাইফেল একে-২০৩

এই একে-২০৩ রাইফেল কালাশনিকভেরই তৈরি আরও অত্যাধুনিক অস্ত্র। একে সিরিজের মধ্যে বর্তমানে সবথেকে শক্তিশালী এই রাইফেল। একে-৪৭ এর মতোই এই রাইফেলের চেম্বারেও ৭.৬২ x ৩৯ মিলিমিটার অ্যামুনেশন ফায়ার করার ক্ষমতা রয়েছে। প্রায় দু’দশকেরও বেশি সময় ধরে ভারতীয় সেনায় ব্যবহার করা ৫.৫৬ x ৪৫ মিলিমিটার অ্যামুনেশন ক্ষমতার ইনস্যাস (ইন্ডিয়ান স্মল আর্মস সিস্টেম) রাইফেলের পরিবর্তে এবার এই রাইফেল ব্যবহার করা হবে।

একে-২০৩ রাইফেলের সুবিধা হল এটি যে চালাচ্ছে তার উচ্চতা অনুযায়ী বদল করা যায়। এই রাইফেলের সেফটি মেকানিজমও অন্য রাইফেলের থেকে আলাদা। নাইট ভিশনেও এই রাইফেল খুবই উপকারী। শত্রুর দিকে গুলি চালাতে অনেক সুবিধা হয়। একে-৪৭ রাইফেলের ম্যাগাজিনও এই রাইফেলে ব্যবহার করা যায়। সব মিলিয়ে অত্যাধুনিক অ্যাসল্ট রাইফেল এবার আসতে চলেছে ভারতীয় সেনার হাতে।

You might also like