Latest News

ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবন জেল আসারাম বাপুর ছেলে নারায়ণ সাইয়ের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ধর্ষণের দায়ে আগেই যাবজ্জীবন জেল খাটছেন স্বঘোষিত গডম্যান আসারাম বাপু। এ বার ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত তাঁর ছেলে নারায়ণ সাইয়ের বিরুদ্ধেও যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা করল সুরাতের আদালত। নারায়ণ সাইয়ের বিরুদ্ধে ধর্ষণ সহ একাধিক অভিযোগ আনা হয়েছিল। এই সব অভিযোগ খতিয়ে দেখেই এই সাজা ঘোষণা করা হয়েছে।

২৬ এপ্রিল সুরাতের জেলা আদালতের বিচারপতি পি এস গাধভি নারায়ন সাইকে ধর্ষণের অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করেন। তিনি বলেন, নারায়ণ সাইয়ের বিরুদ্ধে যে ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছিল, তা সত্যি প্রমাণিত হয়েছে। তাই তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। সাই ছাড়া গঙ্গা ওরফে ধর্মিষ্ঠা মিশ্র, যমুনা ওরফে ভাবিকা পটেল, হনুমান ওরফে কৌশল ঠাকুর ও রমেশ মলহোত্রকে এই ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত করা হয়। বাকি পাঁচ অভিযুক্ত অর্থাৎ, মোহিত ভোজওয়ানি, মনিকা আগরওয়াল, পঙ্কজ দেওরা, অজয় দিওয়ান ও নেহা দিওয়ানের বিরুদ্ধে পর্যাপ্ত সাক্ষীপ্রমাণ না থাকায় তাঁদের মুক্তি দেয় আদালত।

মঙ্গলবার ছিল সাজা ঘোষণা। আদালত সূত্রে খবর, নারায়ণের বিরুদ্ধে আইপিসি ৩৭৬ ( ধর্ষণ ), ৩৭৭ ( অস্বাভাবিক অন্যায় কাজ ), ৩২৩ ( আক্রমণ ), ৫০৬-০২ ( অপরাধমূলক মানসিকতা ) ও ১২০-বি ( ষড়যন্ত্র ) প্রভৃতি ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে। এ দিন এই সাজা ঘোষণাকে কেন্দ্র করে আদালত চত্বরের সুরক্ষা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছিল। ২০১২ সালে সুরাতের বাসিন্দা দুই বোন অভিযোগ করেন, ২০০২ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত তাঁদের বারবার ধর্ষণ করেছেন নারায়ণ। তাঁরা অভিযোগ করেন, সুরাতের আশ্রমে থাকার সময় বারবার তাঁদের ধর্ষণ ও যৌনহেনস্থা করেছেন সাই। ২০১৩ সালের ডিসেম্বর মাসে হরিয়ানার পিপলি থেকে গ্রেফতার করা হয় এই স্বঘোষিত গডম্যানকে। তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণ, বিকৃত যৌনহেনস্থা, শ্লীলতাহানি, অস্ত্র নিয়ে দাঙ্গায় উৎসাহ দেওয়া, ষড়যন্ত্র প্রভৃতি একাধিক ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল।

নারায়ণ সাইয়ের বাবা আসারাম বাপুর উপরেও উঠেছিল ধর্ষণের অভিযোগ। নারায়ণের বড় দিদি অভিযোগ করেছিলেন তাঁর নিজের বাবা তাঁকে দিনের পর দিন ধর্ষণ করেছেন। এ ছাড়াও আশ্রমের আরও কিছু মহিলা অভিযোগ করেছিলেন, তাঁদেরকেও ধর্ষণ করেছেন আসারাম। তারপরেই তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবনের সাজা শোনায় আদালত।

আরও পড়ুন

https://www.four.suk.1wp.in/news-state-controversy-regarding-surjyakanta-mishras-tweet/

You might also like