Latest News

কোটায় শতাধিক শিশুর মৃত্যু: মায়াবতীর পরে প্রিয়ঙ্কাকে তোপ যোগী আদিত্যনাথেরও

দ্য ওয়াল ব্যুরো, জলপাইগুড়ি: কংগ্রেস শাসিত রাজস্থানের কোটায় সরকারি হাসপাতালে শতাধিক শিশুর মৃত্যুতে এবার কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা বঢরাকে নিশানা করলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। নাগরিকত্ব (সংশোধন) আইন বা সিএএর বিরুদ্ধে বেশ কয়েক দিন ধরেই পথে নেমে আন্দোলন করছেন কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধীর মেয়ে প্রিয়াঙ্কা। এদিন যোগী আদিত্যনাথ বলেন, উত্তরপ্রদেশে রাজনীতি না করে প্রিয়াঙ্কার উচিত রাজস্থানে গিয়ে কোটার হাসপাতালে যে শিশুদের মৃত্যু হয়েছে তাদের মায়েদের সঙ্গে দেখা করা।

এর আগে বহুজন সমাজপার্টির প্রধান মায়াবতীও প্রশ্ন তোলেন কোটায় শিশুমৃত্যু নিয়ে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরার চুপ করে থাকা নিয়ে। এক মাসে কোটার হাসপাতালে ১০০টিরও বেশি শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী ও তাঁর মেয়ে প্রিয়াঙ্কা বঢরাকে নিশানা করে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেন, তাঁরা নিজেরা নারী হলেও মায়েদের যন্ত্রণা অনুভব করতে পারছেন না।

হিন্দিতে একের পর এক টুইট করে যোগী আদিত্যনাথ বলেন, “১০০টি শিশুর মৃত্যু অত্যন্ত দুঃখজনক ও হৃদয়বিদারক ঘটনা। এতগুলো শিশুর মৃত্যু সভ্য সমাজ, মানবিক মূল্যবোধ ও অনুভূতির কলঙ্ক।”

অন্য একটি টুইটে তিনি লেখেন, “কংগ্রেস সভানেত্রী ”সনিয়া গান্ধী ও কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরা যে নারী হয়েও মায়েদের বেদনা অনুভব করতে পারছেন না, এটা খুবই দুঃখের কথা।”

পরে তিনি টুইট করে বলেন, উত্তরপ্রদেশের রাজনীতিতে ইন্ধন না দিয়ে প্রিয়াঙ্কার উচিত শোকসন্তপ্ত মায়েদের সঙ্গে দেখা করে তাঁদের সান্ত্বনা দেওয়া।

রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলতকেও বিদ্ধ করেছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী অদিত্যনাথ। টুইটে তিনি বলেছেন, “রাজস্থানের কংগ্রেস সরকার এবং উদাস, অনুভূতহীন ও দায়িত্বজ্ঞানহীন মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের মৌনতা মনকে আরও বিষণ্ণ করে তুলছে।”

ইতিমধ্যেই মায়াবতীও বলেছেন যে, প্রিয়াঙ্কা গান্ধী যদি সেখানে না যান ও ওই শিশুদের মায়েদের সঙ্গে দেখা না করেন তা হলে মনে করতে হবে যে তিনি উত্তরপ্রদেশে স্রেফ রাজনীতি করছেন।

টুইটে তিনি লিখেছেন, “রাজস্থানের কোটা জেলায় ১০০ জনেরও বেশি শিশুর মৃত্যু অত্যন্ত দুঃখজনক ও বেদনাদায়ক। এখনও পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলত ও তাঁর সরকারকে অনুভূতিহীন, নিরুৎসাহ ও দায়িত্বজ্ঞানহীন বলে মনে হচ্ছে। এটা অত্যন্ত নিন্দনীয় ব্যাপার।”

নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে যারা উত্তরপ্রদেশে ভাঙচুর করেছে তাদের বিরুদ্ধে যোগী বদলা নিচ্ছেন বলার কয়েক দিনের মধ্যেই একথা বললেন যোগী আদিত্যনাথ। তিনি যোগী আদিত্যনাথকে উদ্দেশ্য করে বলেছিলেন, এদেশে হিংসা ও বদলা কোনও কিছুরই স্থান নেই। যোগীর পোশাকের রং নিয়ে কটাক্ষ করে প্রিয়াঙ্কা বঢরা বলেছিলেন, গেরুয়া হল হিন্দুত্বের রং যা হিংসা ও বদলাকে সমর্থন করে না।

You might also like