Latest News

সোপিয়ান এনকাউন্টারে খতম ৩ জঙ্গি, নিহতরা জইশ এবং হিজবুলের সদস্য, জানিয়েছে নিরাপত্তাবাহিনী

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রবিবার সকাল থেকেই সেনা-জঙ্গি সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়েছিল দক্ষিণ কাশ্মীরের সোপিয়ান। নিরাপত্তারক্ষীরা আগেই জানিয়েছিলেন কয়েকজন জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে সোপিয়ানের রেবান গ্রামে।

বেলা গড়াতেই জানা গিয়েছে এনকাউন্টারে খতম হয়েছে তিনজন জঙ্গি। এরা জইশ-ই-মহম্মদ এবং হিজবুল মুজাহিদিনের সদস্য বলে জানিয়েছে নিরাপত্তাবাহিনী। আরও কয়েকজন জঙ্গি লুকিয়ে থাকার আশঙ্কায় রেবান গ্রামে জারি রয়েছ তল্লাশি অভিযান। কড়া নিরাপত্তায় গোটা গ্রামে চলছে টহলদারি। ব্যাহত রয়েছে মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা।

সিআরপিএফ, ভারতীয় সেনা এবং জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের যৌথ উদ্যোগে এদিন সকালে অভিযান শুরু হয় সোপিয়ানের রেবান গ্রামে। নিরাপত্তারক্ষীরা জানিয়েছিলেন, অন্তত তিনজন জঙ্গি তাঁদের ঘেরাটোপে রয়েছে। পরে জানা যায় তিন জঙ্গিকেই খতম করেছে নিরাপত্তাবাহিনী।

লকডাউনের সময় বারবার উত্তপ্ত হয়েছে জম্মু-কাশ্মীর। শহিদ হয়েছেন সেনা জওয়ানরা। তবে সাফল্যও পেয়েছে নিরাপত্তাবাহিনী। লকডাউন চলাকালীন খতম হয়েছে হিজবুল এবং জইশের আরও কয়েকজন জঙ্গি। নিহত হয়েছে জম্মু-কাশ্মীরের আইএস শাখার দুই জঙ্গিও।

এছাড়াও মে মাসের শুরুর দিকে পুলওয়ামায় নিজের গ্রাম বেইঘপোরায় এনকাউন্টারে খতম হয়েছিল হিজবুল মুজাহিদিনের কুখ্যাত কম্যান্ডার এবং মোস্ট ওয়ান্টেড রিয়াজ নাইকু। সদ্যই খতম হয়েছে আর এক জঙ্গি। চলতি মাসের শুরুতেই পুলওয়ামা এনকাউন্টারে খতম হয়েছে জইশ-ই-মহম্মদের বোমা বিশেষজ্ঞ এবং ফিদায়েঁ প্রশিক্ষক ফৌজি ভাই। গত বছর সিআরপিএফ কনভয়ে আত্মঘাতী বিস্ফোরণের পিছনেও এই ফৌজি ভাইয়ের সক্রিয় ভূমিকা ছিল।

You might also like