Latest News

সুশান্ত মৃত্যু তদন্ত: মুম্বই পুলিশের দুই আধিকারিককে সমন পাঠালো সিবিআই

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে এবার মুম্বই পুলিশের দুই আধিকারিককে সমন পাঠিয়েছে সিবিআই। সূত্রের খবর, এই দুই পুলিশ আধিকারিক সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে যুক্ত ছিলেন। জানা গিয়েছে, এই দু’জনের মধ্যে একজন হাসপাতালে ভর্তি। অন্যজন রয়েছেন কোয়ারেন্টাইনে। মুম্বই পুলিশের এই দুই আধিকারিককে সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তের বেশ কিছু নথি সিবিআইয়ের কাছে জমা দিতে বলা হয়েছে।

গত বুধবার সুপ্রিম কোর্ট রায় দেয় যে সুশান্তের মৃত্যুর তদন্ত করবে সিবিআই। এরপর শুক্রবার মুম্বই পৌঁছয় সিবিআইয়ের ১০ সদস্যের একটি দল। ডিআরডিও- গেস্ট হাউসে রয়েছেন সিবিআইয়ের তদন্তকারী আধিকারিকরা। এর মধ্যেই বেশ কয়েকবার সুশান্তের রাঁধুনি নীরজ সিং এবং বন্ধু সিদ্ধার্থ পিঠানিকে জেরা করেছে সিবিআই। বান্দ্রার ফ্ল্যাটেও গিয়েছিলেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। সূত্রের খবর, ‘ক্রাইম সিন’ পুনর্নির্মাণ করে দেখেছেন তাঁরা।

যদিও সুশান্ত সিং রাজপুতের রহস্যজনক মৃত্যুর পর অভিযুক্তের তালিকায় সবচেয়ে বেশিবার যাঁর নাম এসেছে সেই রিয়া চক্রবর্তী, প্রয়াত অভিনেতার বান্ধবী কিংবা তাঁর পরিবারের কাউকে এখনও পর্যন্ত তলব করেননি সিবিআইয়ের আধিকারিকরা। তবে রিয়া এবং তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে এ যাবৎ একাধিক বিস্ফোরক অভিযোগ এনেছেন সুশান্তের বাবা কে কে সিং। রাজপুত পরিবারের বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ এনেছেন রিয়াও।

গত ১৪ জুন বান্দ্রার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয় অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের দেহ। তারপর সময় যত এগিয়েছে রহস্য বেড়েছে এই তদন্তে। ইতিমধ্যেই সুশান্তের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট খতিয়ে দেখছে এইমসের ফরেন্সিক মেডিসিন বিভাগের চার বিশেষজ্ঞের একটি দল। এই দলের পুরোধা এইমসের ফরেন্সিক মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডক্টর সুধীর গুপ্তা। আগামী ২৭ অগস্ট দলের বাকি তিন সদস্যের সঙ্গে মুম্বই এসে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানোর কথা রয়েছে তাঁর। এর আগে সুনন্দা পুষ্কর, জেসিকা লাল এবং শিনা বোরা মৃত্যু রহস্যের ক্ষেত্রেও সিবিআইয়ের সঙ্গে কাজ করেছেন ডক্টর সুধীর গুপ্তা।

অন্যদিকে জানা গিয়েছে সুশান্তের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় এবার ‘সাইকোলজিক্যাল অটোপ্সি’ করবে সিবিআই। সেন্ট্রাল ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরির তরফে এই মনের ময়নাতদন্ত করা হবে। সিবিআই সূত্রের খবর, সুশান্ত সিং তদন্তে যে মনের ময়নাতদন্ত করার সিদ্ধান্ত হয়েছে, তা এর আগে মাত্র দু’বার করা হয়েছিল। প্রথম বার শশী তারুরের স্ত্রী সুনন্দা পুষ্করের মৃত্যুর ঘটনায় এবং দ্বিতীয় বার দিল্লির বুরারিতে একই পরিবারের ১১ সদস্যের একসঙ্গে আত্মঘাতী হওয়ার মর্মান্তিক ঘটনায়।

You might also like