Latest News

আড়াই লাখ নতুন সংক্রমণ দেশে, ওমিক্রন রোগী পাঁচ হাজারের বেশি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দৈনিক সংক্রমণ দু’লাখ ছাড়িয়েছিল বুধবারই। একদিনের মধ্যে নতুন আক্রান্ত আড়াই লাখ ছুঁতে চলল। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানাচ্ছে, দেশের ২৮টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে সংক্রমণের হার ১৩ শতাংশের বেশি। দিল্লি, মহারাষ্ট্র, পশ্চিমবঙ্গে করোনা গ্রাফ বাড়ছে। এর মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে দৈনিক করোনা সংক্রমণের হার ৩০ শতাংশের বেশি।

আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও মৃত্যু বাড়েনি। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে প্রাণ হারিয়েছেন ৩৮০ জন।  সুস্থতার হারও ৯৫ শতাংশের কাছাকাছি। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আক্রান্তেরা দ্রুত সেরেও উঠছেন, তবে সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। রাজ্যে রাজ্যে কোভিড পজিটিভিটি রেট বেড়েছে। চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীরাও সংক্রমিত হয়ে পড়ছেন।

গত কয়েক দিন ধরেই দেশে দৈনিক সংক্রমণের হার ১০ শতাংশ ছাড়িয়ে গেছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের রিপোর্ট বলছে, দেশের ২৯টি রাজ্যে সংক্রমণের হার ১৩ শতাংশের বেশি। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে ওমিক্রন রোগীর সংখ্যা। পাঁচ হাজার ছাড়িয়ে গেছে এর মধ্যেই।

সংক্রমণের হারে দেশের মধ্যে শীর্ষে পৌঁছে গেছে পশ্চিমবঙ্গ। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের রিপোর্ট বলছে, বাংলায় বর্তমানে সংক্রমণের হার ৩২.১৮ শতাংশ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা মহারাষ্ট্রে ২২.৩৯ এবং তৃতীয় স্থানে থাকা দিল্লিতে ২৩.১ শতাংশ।

স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানাচ্ছে, দেশের ১২০টি জেলায় কোভিড পজিটিভ রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। সেকেন্ড ওয়েভের সময় ঠিক যেভাবে পজিটিভিটি রেট ঊর্ধ্বে চড়েছিল, তেমনই সংক্রমণের ঢেউ আছড়ে পড়েছে দেশে। থার্ড ওয়েভে ঘরে ঘরে ঢুকে পড়েছে সংক্রমণ। সর্দি-কাশি, জ্বর প্রায় প্রত্যেক পরিবারে। টেস্ট করালেই করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসছে। জটিল সংক্রমণ খুব কমই হচ্ছে, তবে মদু বা মাঝারি সংক্রমণ দেখা যাচ্ছে অনেকেরই। চিন্তার বিষয় হল উপসর্গহীন রোগীর সংখ্যাও বাড়ছে দেশে। সংক্রমণের বাহ্যিক লক্ষণ না থাকায় উপসর্গহীন বা অ্যাসিম্পটোমেটিকদের সংস্পর্শ থেকে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে আরও অনেকের মধ্যে।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকাসুখপাঠ

You might also like