Latest News

অসমে বন্যায় মৃত ১২৩, ক্রমশ ভয়াবহ হচ্ছে পরিস্থিতি, চলতি সপ্তাহেও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অসমে বন্যা পরিস্থিতি ক্রমশ ভয়াবহ হচ্ছে। বাড়ছে মৃতের সংখ্যা।

বন্যা এবং ভূমিধসে এই বছর অসমে মৃত্যু হয়েছে ১২৩ জনের। এঁদের মধ্যে ভূমিধসে মারা গিয়েছেন ২৬ জন। আর বন্যায় মৃত্যু হয়েছে ৯৩ জনের। শনিবার নতুন করে মোরিগাঁও জেলায় মৃত্যু হয়েছে একজনের। এখনও পর্যন্ত অসমে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মোট ২৭টি জেলা। উত্তর- পূর্ব ভারতের এই রাজ্যের ৩৩টি জেলার মধ্যে ২৭টি জেলাই রয়েছে জলের তলায়। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ২৬.৩৮ লক্ষ লোক। বন্যার জলে ডুবে রয়েছে একরের পর একর চাষের জমি। মারা গিয়েছে অসংখ্য গবাদি পশু।

গোয়ালপাড়া, বরপেটা এবং মোরিগাঁও এই তিন জেলা বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। লাগাতার ভারী বৃষ্টি হওয়ায় ব্রহ্মপুত্র-সহ অসমের একাধিক নদনদী বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে। গুয়াহাটি, তেজপুর, ধুবড়ি এবং গোয়ালপাড়া এলাকায় ব্রহ্মপুত্রের জলের মাত্রা বেড়েছে। এ ছাড়াও ধানসিঁড়ি, জিয়া ভরলি, কপিলি, বেকি এবং সঙ্কোশ—-ব্রহ্মপুত্রের এইসব শাখানদী এবং উপনদীতেও জলোর মাত্রা বেড়েছে।

রাস্তাঘাট, ব্রিজ, কালভার্ট—-বন্যার জলের তোড়ে এইসবই ভেঙেছে বিশ্বনাথ, লখিমপুর, ধুবড়ি, চিরাং, নওগাঁও, জোরহাট, বরপেটা এবং মাজুলি জেলায়। নাগাড়ে বৃষ্টির ফলে মাটি আলগা হয়ে ধস নেমেছে বিশ্বনাথ, দক্ষিণ সালমারা, চিরাং এবং মাজুলি জেলার বেশ কিছু অংশে। অসম স্টেট ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অথরিটি জানিয়েছে, বন্যা কবলিত ১৯ জেলায় এখনও পর্যন্ত ৫৬৪টি ত্রাণ শিবির তৈরি হয়েছে। সেখানে ঠাঁই নিয়েছেন ৪৭,৭৭২ জন। সব বন্যা কবলিত এলাকাতেই জোরকদমে উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলাকারী দলের সদস্যরা। মত ১৩টি এনডিআরএফ-এর টিম।

অসমের বন্যা প্রতি বছরের সমস্যা। উত্তর-পূর্ব ভারতের এই রাজ্যে বন্যা নতুন ঘটনা নয়। তবে এ বছর প্রভাব যেন একটু বেশি। এ যাবৎ ১২৭টি প্রাণী মারা গিয়েছে। কাজিরাঙায় উদ্ধার হয়েছে ১৫৭টি প্রাণ। বন্যার জেরে কাজিরাঙা ন্যাশনাল পার্ক এবং টাইগার রিজার্ভের মতো পবিতরা থেকেও লোকালয়ে বেরিয়ে এসে ঠাঁই নিচ্ছে গণ্ডারের দল। তাদের উদ্ধারে তৎপর বনদফতরের কর্মীরা।

আগামী ২৯ জুলাই পর্যন্ত অসমে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনেওয়ালের সঙ্গে কথা বলেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ।

অন্যদিকে বন্যায় বিপর্যস্ত পূর্ব ভারতের রাজ্য বিহার। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ১০ লাখ লোক। ডুবে গিয়েছে ১০টি জেলা। এ যাবৎ বিহারে বন্যায় মৃত্যু হয়েছে ১৮ জনের। আগামী সপ্তাহে বিহারেও ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি করেছে মৌসম ভবন।

You might also like