Latest News

বাকুঁড়ায় শ্রমিকের পেটে সাড়ে সাতশো গ্রামের মাংসপিণ্ড!

দ্য ওয়াল ব্যুরোঃ পেটে জমাট বেঁধেছে প্রায় সাড়ে সাতশো গ্রাম ওজনের মাংসপিণ্ড (tumour)। তাই নিয়েই দিন কাটাচ্ছিলেন মদন রজক (৪৫)। তিনি পেশায় শ্রমিক (labor)। বাস পুরুলিয়ায়। পেটের ভিতর এই বিরল ভার নিয়েই বছরের পর বছর কাটিয়ে দিয়েছেন মদন। অবশেষে ভারমুক্ত হলেন। তাঁর পেটে জটিল অস্ত্রোপচার করে সফল ডাক্তারবাবুরা (doctors)।

অভিনব কায়দায় ব্যাঙ্কের ১৫ লাখ গায়েব! হাওড়ায় গ্রেফতার জামতারা গ্যাংয়ের চক্রী

বাঁকুড়া (bankura) সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজে পুরুলিয়ার মদন রজকের চিকিৎসা হয়েছে। তাঁর পেট থেকে সাড়ে সাতশো গ্রামের মাংসপিণ্ড কেটে বের করেছেন ডাক্তাররা। আপাতত তিনি সুস্থ রয়েছেন বলে হাসপাতাল সূত্রের খবর।

মদন জানিয়েছেন, মাঝেমধ্যেই পেটে ব্যথা হত তাঁর। মল-মূত্র ত্যাগে সমস্যা থেকে শুরু করে গ্যাস অম্বল প্রায়ই লেগে থাকত। এমনকি পেটের মধ্যে বড়সর ভারী কিছ্র উপস্থিতিও উপলব্ধি করতে পারতেন মদন। এভাবেই কাটয়েছেন কুড়ি থেকে পঁচিশ বছর। আগেও টিউমার নিয়ে ডাক্তারের শরণাপন্ন হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু কোথাও কাজের কাজ হয়নি।

বাঁকুড়ার হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন এই রোগের নাম পেরিটোনিয়াল জায়েন্ট লুজ বডি । এটি একটি মাংসপিণ্ড যা পেটের মধ্যে ঘুরে বেড়ায়। কখনও এই মাংসপিণ্ড সাংঘাতিক আকার নিতে পারে বলেও জানিয়েছেন ডাক্তারবাবুরা। এমনকি রোগীর মৃত্যুও ডেকে আনতে পারে তা। কয়েক হাজার জনের মধ্যে দু-এক জন এই বিরল রোগের শিকার হন।

এদিন বাঁকুড়া সম্মিলনী হাসপাতালের দশ জন ডাক্তারের একটি টিম মদন রজকের অস্ত্রোপচার করেছেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি হাসপাতালের পরিকাঠামোগত উন্নতি ও চিকিৎসকদের চেষ্টার ফলেই এই ধরনের অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like