Latest News

৪৪ কোটি ভ্যাকসিনের ডোজ অর্ডার দিয়েছে কেন্দ্র, অগস্ট থেকেই আসতে শুরু করবে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভ্যাকসিন নীতি নিয়ে বড় ঘোষণার পরদিনই ৪৪ কোটি টিকার ডোজের অর্ডার দিল কেন্দ্রীয় সরকার। সেরাম ইনস্টিটিউটকে ২৫ কোটি ও ভারত বায়োটেককে ১৯ কোটি টিকার ডোজ দিতে বলা হয়েছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রক সূত্রে খবর, দুই ভ্যাকসিন নির্মাতা সংস্থাই তাঁদের বিপুল উৎপাদন শুরু করে দিয়েছে। অগস্ট থেকে ডিসেম্বরের মধ্যে এই ভ্যাকসিনের ডোজ চলে আসবে দেশের বাজারে।

দেশের বেশ কিছু রাজ্যে কোভিড ভ্যাকসিনের জোগান কম। সরকারি তরফে জানানো হয়েছিল, জুলাই মাস থেকেই দেশে ভ্যাকসিনের উৎপাদন বাড়বে। মাঝ জুলাই থেকে প্রতিদিনে প্রায় এক কোটি করে টিকার ডোজ পাওয়া যাবে বলেও জানানো হয়েছিল। স্বাস্থ্যমন্ত্রক আরও বলেছিল, অগস্ট মাস থেকে দেশে আরও কয়েকটি ভ্যাকসিন চলে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। হায়দরাবাদের সংস্থা বায়োলজিক্যাল ই-কে ইতিমধ্যেই ৩০ কোটি টিকার ডোজ তৈরি করার অর্ডার দিয়েছে কেন্দ্র। তার জন্য ১৫০০ কোটি টাকার চুক্তি হয়েছে। অগস্ট মাস থেকে সেই উৎপাদনও শুরু হবে বলে জানা গিয়েছে।

সোমবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেওয়ার সময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছিলেন, ভ্যাকসিন কেনা ও বন্টনের দায়িত্বে থাকবে কেন্দ্রীয় সরকার। ভ্যাকসিন নীতিতে আরও কিছু পরিবর্তনের কথাও ঘোষণা করেছিলেন মোদী। তিনি বলেছিলেন, ২১ জুন থেকে ১৮ বছরের উর্ধ্বে সকলকে বিনামূল্যে টিকা দেওয়া হবে। কেন্দ্রীয় সরকার ভ্যাকসিন কিনে তা রাজ্যগুলিকে চাহিদা মতো সরবরাহ করবে। ভ্যাকসিনের ২৫ শতাংশ যাতে বেসরকারি হাসপাতাল পেতে পারে, সেই ব্যবস্থাও জারি থাকবে। একটি ডোজের জন্য সর্বোচ্চ ১৫০ টাকা সার্ভিস চার্জ নিতে পারবে বেসরকারি হাসপাতালগুলি। মঙ্গলবার ভ্যাকসিন নীতি নিয়ে কেন্দ্রের নয়া নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, টিকার ডোজের সামান্যতম অপচয় হলেই রাজ্যের মোট বরাদ্দে তার প্রভাব পড়বে। কাজেই ভ্যাকসিনের ডোজের অপচয় যাতে না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে রাজ্যগুলিকেই।

You might also like