Latest News

বন্যা-ধসে বিধ্বস্ত নেপাল, ভেসে গেছে গ্রামের পর গ্রাম, মৃত শতাধিক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রবল বৃষ্টি ও তুষারধসে বিপর্যস্ত উত্তরাখণ্ড। নেপালের (Nepal) পরিস্থিতিও একই রকম। নাগাড়ে বৃষ্টি ও ধস নেমে বিধ্বস্ত নেপালের একাধিক এলাকা। জলে ভেসে গেছে বহু গ্রাম। ঘরবন্দি মানুষজনকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। দুর্যাগো এখনও অবধি শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর। হাজারের বেশি ঘরছাড়া।

নেপাল পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ভারী বৃষ্টিতে বানভাসি কমপক্ষে ১৯টি জেলা। গ্রামের পর গ্রাম ভেসে গেছে। বৃষ্টিতে মাটি আলগা হয়ে ধস নেমে ভেঙেছে ঘরবাড়ি, দোকানপাট। এখনও অবধি ১১১ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। জখম অন্তত ৩২ জন। খোঁজ মিলছে না ৩৫ জনের। রাস্তাঘাট জলমগ্ন, সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। বিদ্যুৎ পরিষেবা বিপর্যস্ত।

Death toll reaches 88 as rains lash Nepal, trigger floods and landslides |  World News,The Indian Express

নেপালের বন্যা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে ক্যাবিনেট মন্ত্রীদের নিয়ে শুক্রবারই উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী শের বাহাদুর দেউবা। প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে জানানো হয়েছে, বৃষ্টি ও বন্যায় পশ্চিম নেপালের বহু গ্রাম ক্ষতিগ্রস্থ। চাষের জমি ভেসে গেছে। ফসলের ক্ষতি হয়েছে। ধসের কারণে মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। পাহাড়ি গ্রামগুলি থেকে মানুষজনকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। বিধ্বস্ত এলাকাগুলিতে ত্রাণসামগ্রী বিলির চেষ্টা করা হচ্ছে।

Floods and landslides lash Nepal, scores dead | News | DW | 12.07.2020

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পশ্চিম নেপালের বহু গ্রাম জলে ভেসে গেছে। সেখানে খাবার নেই, পানীয় জল নেই, বাসিন্দারা কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন। এদিকে সড়কপথগুলি ধসের কারণে বন্ধ হয়ে যাওয়ায় উদ্ধারকাজে বিলম্ব হচ্ছে। রেল ও বিমান পরিষেবাও আপাতত বন্ধ। বিরাটনগর বিমানবন্দরের রানওয়ে জলমগ্ন। অন্তর্দেশীয় বিমানগুলিও বন্ধ রাখা হয়েছে। এর মধ্যেই আবার উচ্চ পার্বত্য এলাকাগুলিতে তুষারপাত শুরু হয়েছে। আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, আগামী আরও কয়েকদিন বৃষ্টি চলবে নেপালে। পর পর ধস নামতে পারে পাহাড়ি এলাকাগুলিতে। চূড়ান্ত সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকাসুখপাঠ

You might also like