Latest News

Wheat Export Banned: উৎপাদন কমছে, গম রফতানি বন্ধ করল ভারত, কমবে আটার দাম

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে গোটা বিশ্বে গমের সঙ্কট তৈরি হয়েছে (Wheat Export Banned)। ভবিষ্যতে তা আরও বাড়তে পারে। বিশ্ব যখন গমের সঙ্কটে ভুগছে, তখন সেই শূন্য়স্থান পূরণ করতে চেয়েছিল ভারত। তবে এরই মাঝে দেশে তলানিতে গিয়ে ঠেকে গম উৎপাদন। এই আবহে দেশে যাতে খাদ্য সংকট তৈরি না হয়, সে জন্য গম রফতানির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল ভারত সরকার। জানা গেছে, অবিলম্বে গম রফতানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

মার্চের মাঝামাঝি সময়ে দেশ জুড়ে তীব্র তাপপ্রবাহ দেখা দিয়েছিল। এর কারণে ভারতে গমের উৎপাদন কমতে থাকে। কৃষি মন্ত্রক এবং খাদ্য মন্ত্রকের আশঙ্কা, উৎপাদন কমবে প্রায় ৬০ লক্ষ টন। পঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ মার্চ মাস থেকেই তাপপ্রবাহে জ্বলছে। ফলে মার খেয়েছে ফলন। তাছাড়া ইউক্রেন রাশিয়া যুদ্ধের পর থেকেই বিশ্বে কমেছে গম রফতানি (Wheat Export Banned)। কারণ ইউক্রেন বিভিন্ন দেশে প্রচুর পরিমাণে গম সরবরাহ করে। সেই সরবরাহ বাধা পেতেই বিশ্বব্যাপী ক্রেতারা গম পেতে ভারতের দিকে ঝুঁকছিল। ফলে দেশেও কিছুটা সংকট তৈরি হয়। কারণ রফতানিতেই প্রচুর গম বাইরে চলে যাচ্ছিল।

বর্তমানে পরিস্থিতি বদলে গেছে। রফতানির ফলে দেশের বাজারে বেড়ে গিয়েছে গমের দাম। আর এরপরেই সরকার দামে লাগাম টানতে গম রফতানি নিষিদ্ধ করেছে। রাজনৈতিক মহলের বক্তব্য, গম কূটনীতির মাধ্যমে ভারতের আন্তর্জাতিক ভাবমূর্তি তৈরি হবে ঠিকই। কিন্তু এর বড় মূল্য চোকাতে হবে দেশবাসীকে। যেহেতু দেশের উৎপাদিত গমের অর্ধেকটাই কিনছে বেসরকারি সংস্থা, এবং তারা বিশ্ব বাজারে এই সংকটের সময় শস্য ধরে রেখে পরে দাম বহুগুণে বাড়িয়ে মুনাফা করতে চাইবে। ফলে দেশে কৃত্রিম সংকট তৈরি হবে, গমজাত পণ্যের দামও বাড়বে। তাই আগে থেকেই রফতানিতে লাগাম টানল কেন্দ্রীয় সরকার।

You might also like